,

03

রাজারবাগ পীরের সম্পদের অনুসন্ধানে দুদক

হাওর বার্তা ডেস্কঃ রাজারবাগ দরবার শরীফের পীর দিল্লুর রহমানের বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ অনুসন্ধানে তিন সদস্যের দল গঠন করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

দুদক সচিব ড. মু. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার মঙ্গলবার সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

দুদক সচিব বলেন, রাজারবাগ দরবার শরীফের পীরের বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষকে ধর্মের নামে ধোকা দিয়ে বিভিন্ন অনিয়মের মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে সাত হাজার একর জমি ক্রয় ও দখলসহ অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ অনুসন্ধানের আদেশ দিয়েছেন আদালত। এর পরিপ্রেক্ষিতে দুদক তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি দল গঠন করে এর কার্যক্রম শুরু করেছে। অনুসন্ধান দলকে আদালতের আদেশে অনুসারে ৩০ নভেম্বরের মধ্যে অনুসন্ধান প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়েছে।

৮ নভেম্বর উচ্চ আদালতের আদেশে কমিশন পীরের বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগের অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত নেয়। এরও আগে ১৯ সেপ্টেম্বর রাজারবাগ দরবার শরীফের সব সম্পদের তথ্য খুঁজতে দুদককে, জঙ্গি সম্পৃক্ততা খতিয়ে দেখতে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটকে এবং উচ্চ আদালতে রিটকারী আটজনের বিরুদ্ধে করা হয়রানিমূলক মামলার বিষয়ে তদন্ত করতে পুলিশের অপরাধ ও তদন্ত বিভাগকে (সিআইডি) আদেশ দেন হাইকোর্ট।

ওই আদেশের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আবেদন করেন দিল্লুর রহমান। ২৬ অক্টোবর হাইকোর্টের দেওয়া আদেশ বহাল রাখেন আপিল বিভাগ। আদালত পীরের বিরুদ্ধে তদন্ত স্থগিত চেয়ে করা আবেদন খারিজ করে দেন। এতে দিল্লুর রহমানের তদন্ত করতে কোনো বাধা থাকলো না বলে জানান আইনজীবীরা।

রাজারবাগ দরবার শরীফের পীর দিল্লুর রহমান ও তার অনুগতরা বিভিন্ন ব্যক্তির বিরুদ্ধে শতাধিক মামলা করেছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। আর এসব মামলার উদ্দেশ্য সাত হাজার একর জমি ও রাবার বাগান দখল। বিষয়টি দেশের সর্বোচ্চ আদালত পর্যন্ত গড়ালে মামলাগুলো স্থগিত করে পীরের বিরুদ্ধে তদন্তের আদেশ দেন হাইকোর্ট।

সুএঃ যুগান্তর অনলাইন

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর