,

zakaria-lead-2111030526

বাবা-মা ও বন্ধুরা বলতেন আমি ঢাবিতে ভর্তি পরীক্ষায় প্রথম হবো’

হাওর বার্তা ডেস্কঃ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা অনুষদভুক্ত খ ইউনিটের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় প্রথম হওয়া মো. জাকারিয়া বলেছেন, ‘আব্বু-আম্মুর দোয়াতেই আমার আজকের এ অবস্থান। বন্ধু, কোচিংয়ের ভাইয়েরা, বাবা-মা সবসময় আমাকে বলতেন তুমি ঢাবিতে প্রথম হবে। আমি বিশ্বাস করতাম না। আজ তাদের কথাই সত্য হলো। আমি প্রথম স্থান অধিকার করেছি। এ আনন্দ ভাষায় প্রকাশ করার মতো নয়।’

মঙ্গলবার (২ নভেম্বর) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের খ ইউনিটের স্নাতক ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়।  এরপর রাইজিংবিডির মুখোমুখি হয়ে তিনি এ কথা বলেন।

জাকারিয়া বলেন, ‘সত্যি বলতে আমি কখনো একটানা গদ বাঁধা পড়াশোনা করিনি। তবে যখন পড়েছি মনোযোগ দিয়ে পড়েছি। আবার এমনও আছে কোনো কোনো দিন বন্ধুদের সঙ্গে পুরো দিন কাটিয়ে দিয়েছি। তবে ফেসবুক বা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পড়াশোনার বিষয়গুলো নিয়ে ঘাটাঘাটি করতাম।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের লিখিত পরীক্ষার প্রস্তুতির বিষয়ে তিনি বলেন, ‘এক্ষেত্রে ইংরেজির দক্ষতা খুব কাজে লেগেছে।  আমি সবসময় ইংরেজি চর্চা করতাম।  ইংরেজি পার্টেই বেশির ভাগ শিক্ষার্থী সুবিধাজনক মার্ক তুলতে পারে না। আমি সে জায়গায় ভালো করতে পেরেছি।’

জাকারিয়া বলেন, ‘আমি সব সময়ই ইংরেজিকে আলাদা গুরুত্ব দিয়ে পড়েছি। চর্চা করেছি। ফেসবুকে যখন স্ট্যাটাস দিতাম ইংরেজিতে দেওয়ার চেষ্টা করতাম।  নিজে নিজে ফ্রি হ্যান্ড রাইটিং চর্চা করতাম। এটা আমার জন্য কাজে লেগেছে।’

মাদ্রাসা শিক্ষার্থী হয়ে ঢাবিতে ভর্তি পরীক্ষায় প্রথম- এ বিষয়ে জানতে চাইলে মো. জাকারিয়া বলেন, ‘প্রথম হওয়ার জন্য অথবা ভালো কিছু করতে চাইলে মাদ্রাসা বা স্কুল বড় কথা নয়। আসল কথা হচ্ছে আপনি কতটা নিজেকে সময় দিচ্ছেন। নিজেকে তৈরি করছেন’।

তিনি বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন বিষয়ে পড়ার খুব ইচ্ছে।  আইন নিয়েই পড়ব।  ফিউচারে ভালো কিছু করতে চাই। ’

জাকারিয়া খ-ইউনিটের মূল পরীক্ষায় ১০০ নম্বরের মধ্যে ৮০ দশমিক ৫০ পেয়েছেন।  তিনি ডেমরার দারুন্নাজাত সিদ্দিকীয়া কামিল মাদ্রাসা থেকে দাখিল ও আলিম দিয়ে ভর্তি পরীক্ষা দেন। তিনি পটুয়াখালী সদর উপজেলার বদরপুর ইউনিয়নের বাসিন্দা। ভর্তি পরীক্ষায় বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রে পরীক্ষা দিয়েছেন তিনি।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর