,

tajul

যেখানেই ডেঙ্গু রোগী পাওয়া যাবে সেখানেই বিশেষ অভিযান: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

হাওর বার্তা ডেস্কঃ স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী তাজুল ইসলাম বলেছেন, যে এলাকায় ডেঙ্গু রোগী পাওয়া যাবে, সেই এলাকায় বিশেষ অভিযান চালানো হবে। ​আজ রোববার (২৫ জুলাই) সচিবালয়ে নিজ মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে ঢাকা দুই সিটি করপোরেশনের মেয়র এবং সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে জরুরি সভায় তিনি এ কথা জানান। এডিস মশার প্রাদুর্ভাব ও ডেঙ্গু রোধে করণীয় ঠিক করতে এ জরুরি সভার আয়োজন করা হয়।

ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তার তথ‌্য স্থানীয় সরকার বিভাগের উদ্যোগে গঠিত ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণ সমন্বয় সেল এবং দুই সিটি করপোরেশনে পাঠানোর জন্য স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন মন্ত্রী। তিনি বলেন, সরকারি-বেসরকারি যে হাসপাতালেই ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হবে, তাৎক্ষণিকভাবে তাদের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নাম্বার আমাদের সেলে এবং সিটি করপোরেশনে পাঠালে ওই ব্যক্তির বাসা চিহ্নিত করে পুরো এলাকায় বিশেষ মশা নিধন কার্যক্রম চালানো হবে।

মো. তাজুল ইসলাম বলেন, অভিযান চালানোর সময় সিটি করপোরেশনের লোকজনদের বাসায় ঢুকতে দেওয়া হয় না বলে অভিযোগ আসে। অনেক সময় ডেঙ্গু রোগীর আসল ঠিকানা না দিয়ে ভুল তথ্য দেওয়া হয়। এটি একজন সচেতন নাগরিকের কাজ হতে পারে না। কোথায় এডিস মশার লার্ভা আছে, তা জানালে আমরা সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেবো। সবার অংশগ্রহণ ছাড়া মশা নিধন সম্ভব নয়। তিনি আরও বলেন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে যেসব অঞ্চলকে এডিস মশার হট স্পট হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে অর্থাৎ যে অঞ্চল থেকে বেশি রোগী হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে, সেসব এলাকায় আগামীকাল থেকে চিরুনি অভিযান চালানো হবে।

এ সময় পবিত্র ঈদুল আজহায় রাজধানীতে কোরবানির বর্জ্য ২৪ ঘণ্টার মধ্যে অপসারণ করার জন্য ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের মেয়রকে ধন্যবাদ জানান স্থানীয় সরকারমন্ত্রী।

সভায় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম, দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস, গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র জাহাঙ্গীর আলম, স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ এবং স্বাস্থ্য অধিদফতরের প্রতিনিধিসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর