,

12

প্যাকেটজাত না কাঁচা দুধ, স্বাস্থ্যের জন্য কোনটা ভালো

হাওর বার্তা ডেস্কঃ পুষ্টির ভাণ্ডার বলা হয় দুধকে। শরীর ঠিক রাখার জন্য দুধ পান অত্যন্ত কার্যকরী। হাড় থেকে দাঁত পর্যন্ত এটি দেহের বিকাশে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। তবে কোন ধরনের দুধ বেশি উপকারী তা জানাও জরুরি। প্যাকেটজাত দুধ নাকি গোয়ালা সরাসরি যে দুধ সরবরাহ করেন সেটি বেশি উপকারী?

কাঁচা দুধ 
এই দুধ গ্রামাঞ্চলে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয়। গরু, মহিষ বা ছাগলের দুধ সরাসরি ব্যবহার করে গ্রামের মানুষ। কাঁচা দুধ সাধারণত গ্রামাঞ্চল বা মফস্বলে অঞ্চলগুলিতে উৎপাদিত হয়। তবে, এর মধ্যে কিছু জিনিস রয়েছে যা প্রশ্ন তৈরি করে। যেমন, এই দুধে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা সঠিকভাবে নেওয়া হয়েছিল কিনা, পশুদের দুধ দহনের জন্য কোনো ওষুধ বা ইনজেকশন দেওয়া হয়েছিল কিনা, যে পাত্রে দুধ রাখা হয়েছিল সেটি যথাযথভাবে পরিষ্কার করা হয়েছিল কি না। এই বিষয়গুলো নিশ্চিত করতে পারলে তা স্বাস্থ্য ঠিক রাখার ক্ষেত্রে যথাযথ ভূমিকা পালন করতে পারে।

প্যাকেট দুধ

এই জাতীয় দুধ ভেজাল হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। কীটনাশকসহ বিভিন্ন রাসায়নিক উপাদান ব্যবহৃত হতে পারে। এছাড়া এই দুধ প্রস্তুত করার জন্য প্রথমে গরম করা হয় এবং সঙ্গে সঙ্গে ঠাণ্ডা করা হয়। যাতে ব্যাকটেরিয়া সম্পূর্ণরূপে দূর হয়ে যায়। এটি তিন প্রকারের হয়ে থাকে-টোনড, ডাবল টোনড এবং ফুল ক্রিম মিল্ক।

সম্পূর্ণ ক্রিম দুধ রান্না করা হয় না, তবে এই দুধ পাস্তুরাইজড করা হয়। এছাড়াও টোনড মিল্ক এবং ডাবল টোনড মিল্ক ফুল ক্রিম মিল্কের চেয়ে কিছুটা পাতলা। এই তিন ধরনের দুধে বিভিন্ন পুষ্টি থাকে। এটি শহর ও গ্রামীণ অঞ্চলেও সহজেই পাওয়া যায়।

সরাসরি পাওয়া দুধে ভরসা রাখতে না পারলে প্যাকেটজাত দুধ পান করতে পারেন। তবে সবক্ষেত্রেই উৎপাদনের তারিখ নিশ্চিত হয়ে ব্যবহার করতে হবে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর