ঢাকা ০৬:৫০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মৃত হাজীর পরিবারকে ১০ লাখ টাকা করে দেবে ভারত

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ১১:৩৬:৩৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৫
  • ৩০৬ বার

সৌদি আরবের মক্কায় মৃতের সংখ্যা ১০০ ছাড়িয়ে গেছে। শেষ খবর অব্দি ১০৭ জন প্রাণ হারিয়েছেন। আহতের সংখ্যা ১৫০৷ এর মধ্যে পশ্চিমবঙ্গের শিল্পশহর আসানসোলের এক ব্যক্তিও রয়েছেন।

জখম হয়েছেন এ রাজ্যের আরো ২ বাসিন্দা। দুর্ঘটনায় এখনো পর্যন্ত ২ ভারতীয় মারা গেছেন বলে জানা গেছে। শুক্রবার বিকেলে মক্কার সব থেকে বড় মসজিদের (গ্র্যান্ড মস্ক) ছাদে একটি ক্রেন ভেঙে যাওয়ায় এ দুর্ঘটনা ঘটে৷ আগামী ২১ থেকে ২৬ সেপ্টেম্বরের মধ্যে হজ যাত্রীরা আসার আগে সৌদি আরব প্রশাসন ধর্মস্থলটির সম্প্রসারণ করছিল৷

মৃতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেন, মৃতের পরিবারকে রাজ্য সরকারের তরফে ১০ লাখ টাকা দেয়া হবে। বিমার আওতায় মিলবে আরো ৩ লাখ টাকা। যে দু’জন আহত হয়েছেন তাদের চিকিত্‍‌সার জন্যও ১ লাখ টাকা করে দেবে রাজ্য।

প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে, ঝড়ো হাওয়ার জন্যই নির্মাণকাজে ব্যবহৃত ক্রেনটি ভেঙে পড়ে৷ অসামরিক প্রতিরক্ষা দন্তর অবশ্য আগেই ঝড়ো হাওয়া ও বজ্রবিদ্যুৎসহ ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছিল৷

সোশ্যাল মিডিয়াতে আসা ছবিতে দেখা যাচ্ছে, স্ফটিকের মেঝেতে পড়ে আছে রক্তে ভেজা অজস্র মৃতদেহ৷ ঘটনাস্থলে এরই মধ্যে পৌঁছে গেছেন স্বাস্থ্য ও উদ্ধারকর্মীরা৷

মসজিদে নির্মাণ-সংক্রান্ত কাজ চলায় বিভিন্ন দেশের হজ যাত্রীদের সংখ্যার কোটা কমিয়ে দিয়েছে সৌদি কর্তৃপক্ষ৷ ৮৮ একর আয়তনের এই প্রার্থনাস্থল ২৪ ঘণ্টাই খোলা থাকে৷

ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের কাছে জীবনে অন্তত একবার এখানে আসা অবশ্য কর্তব্য৷ গত বছরই নিরাপত্তার কারণে সৌদি প্রশাসন হজযাত্রীদের সংখ্যা নিয়ন্ত্রণ করা শুরু করে৷

২০০৬ সালে এই প্রাঙ্গণেই পদপিষ্ট হয়ে মারা যান ৩৫০ জন৷ ২০০৪-এ একইভাবে মারা যান ২০০ জন৷ সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

মৃত হাজীর পরিবারকে ১০ লাখ টাকা করে দেবে ভারত

আপডেট টাইম : ১১:৩৬:৩৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৫

সৌদি আরবের মক্কায় মৃতের সংখ্যা ১০০ ছাড়িয়ে গেছে। শেষ খবর অব্দি ১০৭ জন প্রাণ হারিয়েছেন। আহতের সংখ্যা ১৫০৷ এর মধ্যে পশ্চিমবঙ্গের শিল্পশহর আসানসোলের এক ব্যক্তিও রয়েছেন।

জখম হয়েছেন এ রাজ্যের আরো ২ বাসিন্দা। দুর্ঘটনায় এখনো পর্যন্ত ২ ভারতীয় মারা গেছেন বলে জানা গেছে। শুক্রবার বিকেলে মক্কার সব থেকে বড় মসজিদের (গ্র্যান্ড মস্ক) ছাদে একটি ক্রেন ভেঙে যাওয়ায় এ দুর্ঘটনা ঘটে৷ আগামী ২১ থেকে ২৬ সেপ্টেম্বরের মধ্যে হজ যাত্রীরা আসার আগে সৌদি আরব প্রশাসন ধর্মস্থলটির সম্প্রসারণ করছিল৷

মৃতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেন, মৃতের পরিবারকে রাজ্য সরকারের তরফে ১০ লাখ টাকা দেয়া হবে। বিমার আওতায় মিলবে আরো ৩ লাখ টাকা। যে দু’জন আহত হয়েছেন তাদের চিকিত্‍‌সার জন্যও ১ লাখ টাকা করে দেবে রাজ্য।

প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে, ঝড়ো হাওয়ার জন্যই নির্মাণকাজে ব্যবহৃত ক্রেনটি ভেঙে পড়ে৷ অসামরিক প্রতিরক্ষা দন্তর অবশ্য আগেই ঝড়ো হাওয়া ও বজ্রবিদ্যুৎসহ ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছিল৷

সোশ্যাল মিডিয়াতে আসা ছবিতে দেখা যাচ্ছে, স্ফটিকের মেঝেতে পড়ে আছে রক্তে ভেজা অজস্র মৃতদেহ৷ ঘটনাস্থলে এরই মধ্যে পৌঁছে গেছেন স্বাস্থ্য ও উদ্ধারকর্মীরা৷

মসজিদে নির্মাণ-সংক্রান্ত কাজ চলায় বিভিন্ন দেশের হজ যাত্রীদের সংখ্যার কোটা কমিয়ে দিয়েছে সৌদি কর্তৃপক্ষ৷ ৮৮ একর আয়তনের এই প্রার্থনাস্থল ২৪ ঘণ্টাই খোলা থাকে৷

ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের কাছে জীবনে অন্তত একবার এখানে আসা অবশ্য কর্তব্য৷ গত বছরই নিরাপত্তার কারণে সৌদি প্রশাসন হজযাত্রীদের সংখ্যা নিয়ন্ত্রণ করা শুরু করে৷

২০০৬ সালে এই প্রাঙ্গণেই পদপিষ্ট হয়ে মারা যান ৩৫০ জন৷ ২০০৪-এ একইভাবে মারা যান ২০০ জন৷ সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া