ঢাকা ০৩:২০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
মহাসত্যের সন্ধানে সালমান ফারসি (রা.) ইসরাইলে মুখোমুখি সেনা ও সরকার, বিপাকে নেতানিয়াহু বন্যায় নেত্রকোণার মদনে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত পানিবন্ধি ১ হাজার ছয়শ বিশ পরিবার মদনে প্রধান সড়ক দখল করে বাসস্ট্যান্ড, দীর্ঘ যানজটে ভোগান্তির যেনো শেষ নেই মদনে কৃষক আজিজুল ইসলামের বজ্রপাতে মৃত্য জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সংসদের সহ-সভাপতি আপেল মাহমুদ ও সহ-সাধারণ সম্পাদক রাহাত মদনে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার বিতরণ করেন ইউএনও প্রধানমন্ত্রীকে ঈদের শুভেচ্ছা নরেন্দ্র মো‌দির দুর্ভাগ্য আমাদের, ভালো খেলেও কোয়াটার ফাইনালে যেতে পারলাম না জাতীয় ঈদগাহে ঈদের নামাজ আদায় করবেন রাষ্ট্রপতি

বিএনপি-আওয়ামী লীগ এখনো ভয় পায় আমাকে : এরশাদ

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ০৯:৪০:৪৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৫
  • ৪৫৬ বার

বিএনপির আন্দোলন ব্যর্থ হয়ে কফিনে ঢুকে গেছে বলে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। বৃহস্পতিবার দুপুর নগরীর একটি কনভেনশন সেন্টারে চট্টগ্রাম মহানগর জাতীয় পার্টির দ্বিবার্ষিক সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।
এরশাদ বলেন, “২০১৩ সালে ময়মনসিংহে বিএনপি নেত্রী ক্ষমতায় আসবে আশা করে আমাকে বলেছিলেন, ‘এরশাদের জায়গা হবে জেলখানায়। লাশও কেউ দেখতে পাবেনা। কিন্তু বিএনপি এখন কোথায়? লাশ কে হবে সেটি এখন দেখার অপেক্ষায় রয়েছি। বিএনপি এখন কফিনে ঢুকে গেছে। তাদের আন্দোলনে কোনো মানুষ রাস্তায় নামে না। তারা সব আন্দোলনে ব্যর্থ হয়েছে।’
তিনি দাবি করেন, ‘বিএনপি-আওয়ামী লীগ এখনো ভয় পায় আমাকে নিয়ে। এখনো যদি রাষ্ট্রপতি শাসিত নির্বাচন হয় তাহলে জাতীয় পার্টিই ক্ষমতায় আসবে। সংসদে বিরোধী দল হচ্ছে সরকারের ছায়া সরকার। কিন্তু গণতন্ত্রের নামে সরকার সেই সুযোগটিও দিচ্ছেনা।’
এরশাদ বলেন, ‘মানুষ শান্তিতে থাকতে পারছেনা। মানুষ কথা বলতে পারছেনা। মানুষের বাক শক্তি কেড়ে নিয়েছে। চারিদিকে শুধু দুর্নীতি আর লুটতরাজ। এসব দেখে মানুষ পরিবর্তনের দিকে ছুটছে। যেদিকে যাচ্ছি মানুষের সাড়া পাচ্ছি। সূর্য একদিকে ডুবছে আর অন্যদিকে উঠছে। আমার চাওয়া পাওয়ার কিছুই নেই। আমি সেনা প্রধান ছিলাম ৮ বছর, রাষ্ট্রপতি ছিলাম ৯ বছর। আমাকে আল্লাহ অনেক কিছুই দিয়েছে। আমি জনগণের জন্য বাঁচতে চাই। আমরা ধর্ষণ, খুন, গুম মুক্ত দেশ চাই। সেই দেশ দিতে পারবে জাতীয় পার্টি। একটি দল ঘোষণা দিয়েও রাস্তায় নামে না। শুধু আমরাই একমাত্র দল সরকারের বিরুদ্ধে কথা বলছি।’
এরশাদ বলেন, ‘আমি ক্ষমতা ছাড়ার পর দল ছিন্ন বিছিন্ন হয়ে গিয়েছিল। দল ছেড়ে অনেকে চলে গিয়েছিল। তবে আজকে অনেকে আমাদের দলে ফিরে আসছে। তারা দেখতেছে আমাদের সুদিন ফিরে এসেছে।’
তিনি বলেন, ‘আমি সেই দিন ডা. মিলন ও নুর হোসেন মারা যাওয়ার কারণে ক্ষমতা ছেড়ে দিয়েছিলাম। আমি মানুষের জন্য রাজনীতি করি। সেজন্য মানুষের দিকে তাকিয়ে আমি ক্ষমতা হস্তান্তর করলাম। আমি বিচারপতি শাহাবউদ্দিনকে শপথ পরিয়েছিলাম। তিনি নির্বাচন দেয়ার জন্য ক্ষমতা গ্রহণ করার কথা বললেও তিনি কথা রাখেননি। তিনি বেঈমানি করেছেন। তিনি ক্ষমতা গ্রহণের ৬ দিনের মাথায় আমাকে, আমার স্ত্রী, ৬ বছরের সন্তানকে জেলে পাঠিয়েছে। আমার দলের মন্ত্রী-এমপিদের জেলে পাঠিয়েছিলেন। এরপর থেকে মূলত আমার দুঃখের জীবন শুরু হয়েছিল। তবে এখন দেখতে পাচ্ছি, আমার জীবনের সুখ ফিরে আসছে। মানুষ আমাদের দিকে ফিরে আসছে।’

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

মহাসত্যের সন্ধানে সালমান ফারসি (রা.)

বিএনপি-আওয়ামী লীগ এখনো ভয় পায় আমাকে : এরশাদ

আপডেট টাইম : ০৯:৪০:৪৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৫

বিএনপির আন্দোলন ব্যর্থ হয়ে কফিনে ঢুকে গেছে বলে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। বৃহস্পতিবার দুপুর নগরীর একটি কনভেনশন সেন্টারে চট্টগ্রাম মহানগর জাতীয় পার্টির দ্বিবার্ষিক সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।
এরশাদ বলেন, “২০১৩ সালে ময়মনসিংহে বিএনপি নেত্রী ক্ষমতায় আসবে আশা করে আমাকে বলেছিলেন, ‘এরশাদের জায়গা হবে জেলখানায়। লাশও কেউ দেখতে পাবেনা। কিন্তু বিএনপি এখন কোথায়? লাশ কে হবে সেটি এখন দেখার অপেক্ষায় রয়েছি। বিএনপি এখন কফিনে ঢুকে গেছে। তাদের আন্দোলনে কোনো মানুষ রাস্তায় নামে না। তারা সব আন্দোলনে ব্যর্থ হয়েছে।’
তিনি দাবি করেন, ‘বিএনপি-আওয়ামী লীগ এখনো ভয় পায় আমাকে নিয়ে। এখনো যদি রাষ্ট্রপতি শাসিত নির্বাচন হয় তাহলে জাতীয় পার্টিই ক্ষমতায় আসবে। সংসদে বিরোধী দল হচ্ছে সরকারের ছায়া সরকার। কিন্তু গণতন্ত্রের নামে সরকার সেই সুযোগটিও দিচ্ছেনা।’
এরশাদ বলেন, ‘মানুষ শান্তিতে থাকতে পারছেনা। মানুষ কথা বলতে পারছেনা। মানুষের বাক শক্তি কেড়ে নিয়েছে। চারিদিকে শুধু দুর্নীতি আর লুটতরাজ। এসব দেখে মানুষ পরিবর্তনের দিকে ছুটছে। যেদিকে যাচ্ছি মানুষের সাড়া পাচ্ছি। সূর্য একদিকে ডুবছে আর অন্যদিকে উঠছে। আমার চাওয়া পাওয়ার কিছুই নেই। আমি সেনা প্রধান ছিলাম ৮ বছর, রাষ্ট্রপতি ছিলাম ৯ বছর। আমাকে আল্লাহ অনেক কিছুই দিয়েছে। আমি জনগণের জন্য বাঁচতে চাই। আমরা ধর্ষণ, খুন, গুম মুক্ত দেশ চাই। সেই দেশ দিতে পারবে জাতীয় পার্টি। একটি দল ঘোষণা দিয়েও রাস্তায় নামে না। শুধু আমরাই একমাত্র দল সরকারের বিরুদ্ধে কথা বলছি।’
এরশাদ বলেন, ‘আমি ক্ষমতা ছাড়ার পর দল ছিন্ন বিছিন্ন হয়ে গিয়েছিল। দল ছেড়ে অনেকে চলে গিয়েছিল। তবে আজকে অনেকে আমাদের দলে ফিরে আসছে। তারা দেখতেছে আমাদের সুদিন ফিরে এসেছে।’
তিনি বলেন, ‘আমি সেই দিন ডা. মিলন ও নুর হোসেন মারা যাওয়ার কারণে ক্ষমতা ছেড়ে দিয়েছিলাম। আমি মানুষের জন্য রাজনীতি করি। সেজন্য মানুষের দিকে তাকিয়ে আমি ক্ষমতা হস্তান্তর করলাম। আমি বিচারপতি শাহাবউদ্দিনকে শপথ পরিয়েছিলাম। তিনি নির্বাচন দেয়ার জন্য ক্ষমতা গ্রহণ করার কথা বললেও তিনি কথা রাখেননি। তিনি বেঈমানি করেছেন। তিনি ক্ষমতা গ্রহণের ৬ দিনের মাথায় আমাকে, আমার স্ত্রী, ৬ বছরের সন্তানকে জেলে পাঠিয়েছে। আমার দলের মন্ত্রী-এমপিদের জেলে পাঠিয়েছিলেন। এরপর থেকে মূলত আমার দুঃখের জীবন শুরু হয়েছিল। তবে এখন দেখতে পাচ্ছি, আমার জীবনের সুখ ফিরে আসছে। মানুষ আমাদের দিকে ফিরে আসছে।’