ঢাকা ০১:১০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাজারে ৪০ বছরের পুরনো মাংস

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ০২:৪১:১৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুন ২০১৫
  • ৩২৯ বার

ভাবতে পারেন ৪০ বছরের পুরনো মাংস দেদার বিক্রি করা হচ্ছে ভোক্তাদের কাছে! সম্প্রতি চীনে ভেজালবিরোধী অভিযান চালিয়ে হাজার টন পুরনো মাংস জব্দ করেছে কর্তৃপক্ষ। খবর নিউইয়র্ক টাইমসের।

চীনা রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সিনহুয়া জানিয়েছে, কর্তৃপক্ষ প্রায় ৫০ কোটি মার্কিন ডলার মূল্যের মাংস জব্দ করেছে, যেগুলো ১৯৭০ দশকের। এতদিন ধরে হিমায়িত করে রাখা হয়েছিল ওগুলো।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ১৪টি প্রদেশ ও অঞ্চলে অভিযান চালিয়ে পাচারকারীদের কাছ থেকে মাংসগুলো জব্দ করা হয়। এর মধ্যে গরু, মুরগি ও শূকরের মাংস রয়েছে।

মাংসগুলো শুধু চীনের বাজারেই নয়, চালান করা হতো হংকং ও ভিয়েতনামেও। চীনা সরকারকে ফাঁকি দিয়েই অবৈধভাবে পাচারকারীরা সেগুলো পাঠাতো বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

হুনান প্রদেশের রাজধানী চাংশা’র কাস্টমস বিভাগের কর্মকর্তা ঝাং তাও বলেন, ‘ওগুলো খুব সুগন্ধী ছিল। পুরো ট্রাকজুড়ে মাংস ছিল। যখন আমি দরজা খুললাম আমি পড়ে যাচ্ছিলাম।’

চাংশা কর্তৃপক্ষ জানায়, গত ১ জুন তারা ৮০০ টন হিমায়িত মাংস জব্দ করে। একই সঙ্গে দুটি পাচারকারী চক্রের ২০ সন্দেহভাজন সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

চীনের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে বলা হয়েছে, মাংসগুলো দেশজুড়ে খুচরা বিক্রেতা, সুপার মার্কেট ও রেস্তোরাঁগুলোতে সরবরাহ করা হতো। এমনকি অনলাইনে বিজ্ঞাপনের মাধ্যমেও ওগুলো বিক্রি করা হতো।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

বাজারে ৪০ বছরের পুরনো মাংস

আপডেট টাইম : ০২:৪১:১৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুন ২০১৫

ভাবতে পারেন ৪০ বছরের পুরনো মাংস দেদার বিক্রি করা হচ্ছে ভোক্তাদের কাছে! সম্প্রতি চীনে ভেজালবিরোধী অভিযান চালিয়ে হাজার টন পুরনো মাংস জব্দ করেছে কর্তৃপক্ষ। খবর নিউইয়র্ক টাইমসের।

চীনা রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সিনহুয়া জানিয়েছে, কর্তৃপক্ষ প্রায় ৫০ কোটি মার্কিন ডলার মূল্যের মাংস জব্দ করেছে, যেগুলো ১৯৭০ দশকের। এতদিন ধরে হিমায়িত করে রাখা হয়েছিল ওগুলো।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ১৪টি প্রদেশ ও অঞ্চলে অভিযান চালিয়ে পাচারকারীদের কাছ থেকে মাংসগুলো জব্দ করা হয়। এর মধ্যে গরু, মুরগি ও শূকরের মাংস রয়েছে।

মাংসগুলো শুধু চীনের বাজারেই নয়, চালান করা হতো হংকং ও ভিয়েতনামেও। চীনা সরকারকে ফাঁকি দিয়েই অবৈধভাবে পাচারকারীরা সেগুলো পাঠাতো বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

হুনান প্রদেশের রাজধানী চাংশা’র কাস্টমস বিভাগের কর্মকর্তা ঝাং তাও বলেন, ‘ওগুলো খুব সুগন্ধী ছিল। পুরো ট্রাকজুড়ে মাংস ছিল। যখন আমি দরজা খুললাম আমি পড়ে যাচ্ছিলাম।’

চাংশা কর্তৃপক্ষ জানায়, গত ১ জুন তারা ৮০০ টন হিমায়িত মাংস জব্দ করে। একই সঙ্গে দুটি পাচারকারী চক্রের ২০ সন্দেহভাজন সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

চীনের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে বলা হয়েছে, মাংসগুলো দেশজুড়ে খুচরা বিক্রেতা, সুপার মার্কেট ও রেস্তোরাঁগুলোতে সরবরাহ করা হতো। এমনকি অনলাইনে বিজ্ঞাপনের মাধ্যমেও ওগুলো বিক্রি করা হতো।