ঢাকা ০১:০৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রমজানে ওবামার শুভেচ্ছা

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ০৪:৩৩:১২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুন ২০১৫
  • ৩৭৯ বার

রমজান মাস উপলক্ষে বিশ্বব্যাপী মুসলমানদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। বাংলাদেশে শুক্রবার থেকে রোজা রাখা শুরু করবেন মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষেরা।

এর আগে বৃহস্পতিবার ঢাকাস্থ মার্কিন দূতাবাস রোজা উপলক্ষে ওবামার বিবৃতি প্রচার করে।

বিবৃতিতে ওবামা বলেন, নতুন চাঁদ ওঠার সঙ্গে যখন পবিত্র রমজান মাস শুরু হয়েছে, সেই সময়টাতে যুক্তরাষ্ট্র এবং সারা বিশ্ব জুড়ে যারা এই মাসটি পালন করছেন, তাদের সবাইকে মিশেল আর আমি উষ্ণ শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।

রমজানের ঐতিহ্য তুলে ধরে তিনি বলেন, রমজান মাস এমন একটি সময় যখন পরিবার ও সম্প্রদায়ভুক্ত মানুষেরা ইফতার ও প্রার্থনার জন্য একত্রিত হয় এবং এই প্রথা মুসলিম সমাজ ও সংস্কৃতির সমৃদ্ধি ও বৈচিত্র্যপূর্ণ ঐতিহ্য তুলে ধরে। ”

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, এই সময়টি আত্মনুসন্ধানের জন্য গভীর আধ্যাত্মিকতার প্রতিফলন ও পুনর্জাগরণের সময়, যা সৃষ্টিকর্তার দয়ার প্রতি সচেতনতা বাড়ায় ও কৃতজ্ঞতায় আবদ্ধ করে।

তিনি বলেন, রমজান মাসের প্রতিটি দিনকে সম্মান জানাতে মুসলমানেরা রোজা রাখার মাধ্যমে ধৈর্য ও প্রতি রাতে প্রার্থনার মাধ্যমে কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। এটা এমন একটা সময় যখন প্রতিকূলতার মধ্য দিয়ে বিশ্বাস, অনুকম্পা, ক্ষমা ও অধ্যবসায় জোরদার করা যায়।  দানের এই মাসে সংঘর্ষ, ক্ষুধা, দারিদ্র্য এবং রোগ-ব্যাধিতে আক্রান্ত মানুষদের সাহায্য করতে সারা বিশ্বের মুসলমানরা হাত বাড়িয়ে দেয়।

রমজানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মুসলমানদের কথা উল্লেখ করে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, এ সময় সবাই অন্যকে সঙ্গে নিয়ে যারা কম ভাগ্যবান, তাদের সাহায্য করেন। এমনকি আন্তঃধর্মীয় সহযোগিতার প্রতিও হাত বাড়িয়ে দেন। এতে করে বিভিন্ন ধর্মবিশ্বাসের মানুষের মধ্যে সম্প্রীতির মেলবন্ধন গড়ে ওঠে ও আমাদের মনে করিয়ে দেয় যে, আমরা একটি একক মার্কিন পরিবার হিসেবে কাজ করি।

তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন ধর্মীয় সম্প্রদায়ের মধ্যে একাত্ম এবং দেশাত্মবোধ জাগায় এবং যার যার ধর্ম চর্চার স্বাধীনতা আমাদের স্মরণ করিয়ে দেয় যে, আমরা সবাই একই মূল্যবোধের অংশীদার।

সারাদেশ জুড়ে মার্কিনি মুসলমানরা যে কাজ করে থাকেন, তাদের সে সব কাজের স্বীকৃতি দিতে এবং পবিত্র রমজান মাসকে সম্মান জানাতে হোয়াইট হাউসে বার্ষিক ইফতারের আয়োজন করা হয় বলেও শুভেচ্ছা বার্তায় উল্লেখ করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা।

সবশেষে ‘রমজান করিম’ জানিয়ে শেষ করেন তার বার্তা।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

জনপ্রিয় সংবাদ

রমজানে ওবামার শুভেচ্ছা

আপডেট টাইম : ০৪:৩৩:১২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুন ২০১৫

রমজান মাস উপলক্ষে বিশ্বব্যাপী মুসলমানদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। বাংলাদেশে শুক্রবার থেকে রোজা রাখা শুরু করবেন মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষেরা।

এর আগে বৃহস্পতিবার ঢাকাস্থ মার্কিন দূতাবাস রোজা উপলক্ষে ওবামার বিবৃতি প্রচার করে।

বিবৃতিতে ওবামা বলেন, নতুন চাঁদ ওঠার সঙ্গে যখন পবিত্র রমজান মাস শুরু হয়েছে, সেই সময়টাতে যুক্তরাষ্ট্র এবং সারা বিশ্ব জুড়ে যারা এই মাসটি পালন করছেন, তাদের সবাইকে মিশেল আর আমি উষ্ণ শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।

রমজানের ঐতিহ্য তুলে ধরে তিনি বলেন, রমজান মাস এমন একটি সময় যখন পরিবার ও সম্প্রদায়ভুক্ত মানুষেরা ইফতার ও প্রার্থনার জন্য একত্রিত হয় এবং এই প্রথা মুসলিম সমাজ ও সংস্কৃতির সমৃদ্ধি ও বৈচিত্র্যপূর্ণ ঐতিহ্য তুলে ধরে। ”

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, এই সময়টি আত্মনুসন্ধানের জন্য গভীর আধ্যাত্মিকতার প্রতিফলন ও পুনর্জাগরণের সময়, যা সৃষ্টিকর্তার দয়ার প্রতি সচেতনতা বাড়ায় ও কৃতজ্ঞতায় আবদ্ধ করে।

তিনি বলেন, রমজান মাসের প্রতিটি দিনকে সম্মান জানাতে মুসলমানেরা রোজা রাখার মাধ্যমে ধৈর্য ও প্রতি রাতে প্রার্থনার মাধ্যমে কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। এটা এমন একটা সময় যখন প্রতিকূলতার মধ্য দিয়ে বিশ্বাস, অনুকম্পা, ক্ষমা ও অধ্যবসায় জোরদার করা যায়।  দানের এই মাসে সংঘর্ষ, ক্ষুধা, দারিদ্র্য এবং রোগ-ব্যাধিতে আক্রান্ত মানুষদের সাহায্য করতে সারা বিশ্বের মুসলমানরা হাত বাড়িয়ে দেয়।

রমজানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মুসলমানদের কথা উল্লেখ করে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, এ সময় সবাই অন্যকে সঙ্গে নিয়ে যারা কম ভাগ্যবান, তাদের সাহায্য করেন। এমনকি আন্তঃধর্মীয় সহযোগিতার প্রতিও হাত বাড়িয়ে দেন। এতে করে বিভিন্ন ধর্মবিশ্বাসের মানুষের মধ্যে সম্প্রীতির মেলবন্ধন গড়ে ওঠে ও আমাদের মনে করিয়ে দেয় যে, আমরা একটি একক মার্কিন পরিবার হিসেবে কাজ করি।

তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন ধর্মীয় সম্প্রদায়ের মধ্যে একাত্ম এবং দেশাত্মবোধ জাগায় এবং যার যার ধর্ম চর্চার স্বাধীনতা আমাদের স্মরণ করিয়ে দেয় যে, আমরা সবাই একই মূল্যবোধের অংশীদার।

সারাদেশ জুড়ে মার্কিনি মুসলমানরা যে কাজ করে থাকেন, তাদের সে সব কাজের স্বীকৃতি দিতে এবং পবিত্র রমজান মাসকে সম্মান জানাতে হোয়াইট হাউসে বার্ষিক ইফতারের আয়োজন করা হয় বলেও শুভেচ্ছা বার্তায় উল্লেখ করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা।

সবশেষে ‘রমজান করিম’ জানিয়ে শেষ করেন তার বার্তা।