,

৪০০ বছর আগের কলসের সন্ধান

মুন্সীগঞ্জ শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত ইদ্রাকপুর কেল্লার ভেতরে ফ্লোর (ভিটা) খনন করার সময় শতশত অক্ষত কলসের সন্ধান পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার ইদ্রাকপুর কেল্লা সংস্কারে কাজ করার সময় শ্রমিকরা ফ্লোর খনন করতে গিয়ে এসব কলসের সন্ধান পায়। এই ফ্লোরের নিচে কলস পাওয়ার খবর পেয়ে শতশত উৎসুক মানুষ তা দেখতে ভিড় জমায়। এই কলসগুলো প্রায় ৪০০ ৪০০ বছর আগের কলসের সন্ধান!

বছর আগের বলে অনেকের ধারণা। একলসগুলো যাতে নষ্ট না হয়, কিংবা প্রত্নতাত্ত্বিক উপাদান নষ্ট না হওয়ার আশঙ্কায় ফ্লোর খনন কাজ বন্ধ করে দেয় কর্তৃপক্ষ।

মোগল সম্রাট আওরঙ্গজেবের আমলে সেনাপতি ও বাংলার সুবেদার মীর জুমলা ১৬৬০ সালে এই ইদ্রাকপুর কেল্লাটি নির্মাণ করেন। এই কেল্লাটি মহাকুমা প্রশাসকে বাসভবন হিসেবে ব্যবহার শুরু হয় ১৮৪৫ সালে। তখন ইদ্রাকপুর কেল্লাটি মহকুমা প্রশাসকের বাসভবন হিসেব ব্যবহারের জন্য সংস্কার করা হয়। কেলার ভিতরটি ভরাট করে মধ্যস্থলে একটি কুটির নির্মাণ করা হয় মহাকুমা ৪০০ বছর আগের কলসের সন্ধান!

প্রশাসকের বাসভবন হিসেবে ব্যবহারে জন্য। এই কেল্লা ১৯৮৪ সাল পর্যন্ত মহকুমা প্রশাসকের বাস ভবন হিসেবে ব্যবহার হয়। ১৯০৯ সালে পুরাকীর্তি হিসেব ঘোষিত হয়।

কেন এই কলসগুলো নিচে দিয়ে উপরে ফ্লোর তৈরি করা হলো, তার সঠিক কারণ ও সময়কাল নির্ণয় করতে পারবে প্রত্ন বিশেষজ্ঞ দ্বারা কলস পরীক্ষা নিরীক্ষা করার পর। এ ব্যাপারে প্রশাসন ৪০০ বছর আগের কলসের সন্ধান!

তৎপরতা শুরু করেছে।

৪০০ বছর আগের কলসের সন্ধান!

এ ব্যাপারে প্রতœতাত্ত্বিক বিভাগের সহকারী পরিচালক মো. মাহাবুবুল আলম জানান, বিষয়টি পরীক্ষা না করে কিছু বলা যাবে না। উপ-সহকারী প্রকৌশলী আব্দুর রাজ্জাক জমাদরসহ একটি টিম ঢাকা থেকে কেল্লার উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছেন। পরিদর্শন শেষে বিস্তারিত জানান হবে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর