ঢাকা ০৯:৪৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নান্দাইলে যুবককে ডেকে নিয়ে হত্যা, ২ ভাইসহ গ্রেপ্তার ৩

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ০৭:৫০:০০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪
  • ১১ বার
ময়মনসিংহের নান্দাইলে রানা মিয়া (২৮) নামের এক যুবককে গভীর রাতে ডেকে নিয়ে হত্যা করে একদল সন্ত্রাসী। এ ঘটনায় পুলিশ রাতেই ১৯ জনকে আসামি করে মামলা নেয়। এ মামলায় দুই ভাইসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করে আজ মঙ্গলবার আদালতের মাধ্যমে তাঁদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয় সূত্র ও পুলিশ জানায়, গত রবিবার (২১ এপ্রিল) গভীর রাতে উপজেলার রাজগাতি ইউনিয়নের গাঙাইলপাড়া গ্রামের মো. হাশেমের ছেলে মো. রানা মিয়াকে হত্যা করে প্রতিবেশী একদল সন্ত্রাসী।

প্রায় চার বছর আগের একটি বিরোধের ঘটনাকে কেন্দ্র করে জেদ পুষে রেখে তারা এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে বলে জানা গেছে। নিহত রানা সৌদি আরবে যাওয়ার সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছিলেন।নিহতের বোন চম্পা আক্তার জানান, তাঁর ভাই রবিবার রাত ৯টার দিকে রাতের খাবার খেয়ে প্রচণ্ড গরমের কারণে বাড়ির পেছনে একটি পুকুরপাড়ে গিয়ে বসে ছিলেন। দীর্ঘ সময় পার হলেও ভাই ঘরে না ফেরায় তিনি খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন পাশের একটি দোকানের সামনে এসে কয়েকজন উল্লাস করে জানিয়ে গেছে রানাকে শেষ করে রাখা হয়েছে।

পারলে যেন পরিবারের লোকজন লাশ নিয়ে আসে। এ খবর পেয়ে বাড়ির অদূরে একটি ধানক্ষেতে গিয়ে দেখতে পান রানা রক্তাক্ত অবস্থায় কাতরাচ্ছেন। শরীরের বিভিন্ন জায়গায় জখমের চিহ্ন।চম্পা জানান, রানার জ্ঞান থাকা অবস্থায় বেশ কয়েকজনের নাম বলেন।

ওই সময় তাঁর জবানবন্দি উপস্থিত অনেকেই মোবাইল ফোনে ধারণ করেন। তাঁকে উদ্ধার করে নান্দাইল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।পুলিশ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে এবং রানার দেওয়া জবানবন্দি অনুযায়ী এলাকার ভুলু, হামিম ও বকুলকে আটক করে। ঘটনার পরপরই উত্তেজিত লোকজন অভিযুক্তদের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাঙচুর করে।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

নান্দাইলে যুবককে ডেকে নিয়ে হত্যা, ২ ভাইসহ গ্রেপ্তার ৩

আপডেট টাইম : ০৭:৫০:০০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪
ময়মনসিংহের নান্দাইলে রানা মিয়া (২৮) নামের এক যুবককে গভীর রাতে ডেকে নিয়ে হত্যা করে একদল সন্ত্রাসী। এ ঘটনায় পুলিশ রাতেই ১৯ জনকে আসামি করে মামলা নেয়। এ মামলায় দুই ভাইসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করে আজ মঙ্গলবার আদালতের মাধ্যমে তাঁদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয় সূত্র ও পুলিশ জানায়, গত রবিবার (২১ এপ্রিল) গভীর রাতে উপজেলার রাজগাতি ইউনিয়নের গাঙাইলপাড়া গ্রামের মো. হাশেমের ছেলে মো. রানা মিয়াকে হত্যা করে প্রতিবেশী একদল সন্ত্রাসী।

প্রায় চার বছর আগের একটি বিরোধের ঘটনাকে কেন্দ্র করে জেদ পুষে রেখে তারা এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে বলে জানা গেছে। নিহত রানা সৌদি আরবে যাওয়ার সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছিলেন।নিহতের বোন চম্পা আক্তার জানান, তাঁর ভাই রবিবার রাত ৯টার দিকে রাতের খাবার খেয়ে প্রচণ্ড গরমের কারণে বাড়ির পেছনে একটি পুকুরপাড়ে গিয়ে বসে ছিলেন। দীর্ঘ সময় পার হলেও ভাই ঘরে না ফেরায় তিনি খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন পাশের একটি দোকানের সামনে এসে কয়েকজন উল্লাস করে জানিয়ে গেছে রানাকে শেষ করে রাখা হয়েছে।

পারলে যেন পরিবারের লোকজন লাশ নিয়ে আসে। এ খবর পেয়ে বাড়ির অদূরে একটি ধানক্ষেতে গিয়ে দেখতে পান রানা রক্তাক্ত অবস্থায় কাতরাচ্ছেন। শরীরের বিভিন্ন জায়গায় জখমের চিহ্ন।চম্পা জানান, রানার জ্ঞান থাকা অবস্থায় বেশ কয়েকজনের নাম বলেন।

ওই সময় তাঁর জবানবন্দি উপস্থিত অনেকেই মোবাইল ফোনে ধারণ করেন। তাঁকে উদ্ধার করে নান্দাইল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।পুলিশ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে এবং রানার দেওয়া জবানবন্দি অনুযায়ী এলাকার ভুলু, হামিম ও বকুলকে আটক করে। ঘটনার পরপরই উত্তেজিত লোকজন অভিযুক্তদের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাঙচুর করে।