ঢাকা ০৯:৩৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বদরী সাহাবীরা শহীদ হয়ে ধর্মকে প্রতিষ্ঠা করেছেন তেমনি বঙ্গবন্ধু রক্ত দিয়ে জাতিকে স্বাধীন করে সম্মানিত করেছেন: মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ০৭:৩৩:৩৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ এপ্রিল ২০২৪
  • ১৯ বার

হাওর বার্তা ডেস্কঃ গৌরবময় মুক্তিযুদ্ধ ও ধর্মীয় চেতনায় উজ্জীবিত সংগঠন বাংলাদেশ ওলামা মাশায়েখ ঐক্যজোট আজ (৮ এপ্রিল ২৮ রমজান) দুপুর ২ ঘটিকায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (সাগর-রুনি হল) মিলনায়তনে মহান স্বাধীনতা দিবস, জাতির পিতার ১০৪তম জন্মদিন এবং ১৪জন শহীদ বদরী সাহবীদের স্মরণে পবিত্র কুরআনখানি, আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী বলেন, বদরী সাহাবীরা শহীদ হয়ে ধর্মকে প্রতিষ্ঠা করেছেন এবং বঙ্গবন্ধু রক্ত দিয়ে এ জাতিকে স্বাধীন করে সম্মানিত করেছেন। তিনি বলেন, জাতির পিতা ইসলামিক ফাউন্ডেশন, মাদ্রাসা বোর্ড, কাকরাইল মসজিদ ও টুঙ্গির ইজতেমা ময়দান বরাদ্দ দিয়ে যুগান্তকারী ইসলামের খেদমত করেছেন। তেমনি জননেত্রী শেখ হাসিনাও কওমি বোর্ড তথা কওমি স্বীকৃতি দিয়ে ইতিহাস গড়েছেন। কারণ পাকিস্তান বাংলাদেশ প্রিয়ডে সকল সরকারের সময় আলেমদের উক্ত দাবি সকল সরকার প্রত্যাখ্যান করেছেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ধর্ম মন্ত্রী আলহাজ্ব ফরিদুল হক খান দুলাল বলেন, মাহে রমজানে যখন সবাই যার যার কাজে ব্যস্ত তখন ওলামা মাশায়েখ সংগঠনের সভাপতি মুফতি সিরাজী সাব ও প্রকৃত আলেমগণ স্বাধীনতা দিবস এবং বদরী সাহাবীদের স্মরণে কুরআনখানী অনুষ্ঠিত করে দেশ ও জাতির কাজে নিজেদেরকে কোরবানী করছেন। মুফতি আল্লামা আব্দুল হালিম সিরাজীর সার্বিক ব্যবস্থাপনা ও সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাওঃ শওকত আমীন, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মাওঃ আখতারুজ্জামান, যুগ্ম সম্পাদক মাওঃ তাজাম্মুল হুসাইন খান, যুগ্ম সম্পাদক মুফতী আল আমীন, মাওলানা ইউসুফ সিদ্দিকী এবং দৈনিক হাওর বার্তার সম্পাদক মোহাম্মদ  জাকির হোসাইন প্রমুখ।

খালেদা নিজামীর জিঘাংসার শিকার কারা নির্যাতিত আলেম মুফতি আল্লামা আব্দুল হালিম সিরাজী সভাপতির বক্তব্যে বলেন, সরকারের উচিত ত্যাগী যোগ্য আলেমদের দ্বারা অবিলম্বে ইসলামিক ফাউন্ডেশন, হজ্জ অফিস ও ওয়াক্ফ প্রশাসন পরিচালনা করা। পরিশেষে মুফতি সিরাজী আবেগঘণ মোনাজাতে জাতির পিতা, ৩০ লক্ষ শহীদ, ১৫ আগস্টের শহীদ, ৫২’র ভাষা শহীদ, বদরী ১৪ জন শহীদ সাহবীদের শাহাদাতের নাজরানা কবুল করার জন্য প্রার্থনা করেন এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, শেখ রেহানা, শেখ পরিবার, মুক্তিযুদ্ধ পরিবার ও শহীদ পরিবারদের সদস্যদের জন্য দীর্ঘ নেক হায়াত কামনা করে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

বদরী সাহাবীরা শহীদ হয়ে ধর্মকে প্রতিষ্ঠা করেছেন তেমনি বঙ্গবন্ধু রক্ত দিয়ে জাতিকে স্বাধীন করে সম্মানিত করেছেন: মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী

আপডেট টাইম : ০৭:৩৩:৩৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ এপ্রিল ২০২৪

হাওর বার্তা ডেস্কঃ গৌরবময় মুক্তিযুদ্ধ ও ধর্মীয় চেতনায় উজ্জীবিত সংগঠন বাংলাদেশ ওলামা মাশায়েখ ঐক্যজোট আজ (৮ এপ্রিল ২৮ রমজান) দুপুর ২ ঘটিকায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (সাগর-রুনি হল) মিলনায়তনে মহান স্বাধীনতা দিবস, জাতির পিতার ১০৪তম জন্মদিন এবং ১৪জন শহীদ বদরী সাহবীদের স্মরণে পবিত্র কুরআনখানি, আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী বলেন, বদরী সাহাবীরা শহীদ হয়ে ধর্মকে প্রতিষ্ঠা করেছেন এবং বঙ্গবন্ধু রক্ত দিয়ে এ জাতিকে স্বাধীন করে সম্মানিত করেছেন। তিনি বলেন, জাতির পিতা ইসলামিক ফাউন্ডেশন, মাদ্রাসা বোর্ড, কাকরাইল মসজিদ ও টুঙ্গির ইজতেমা ময়দান বরাদ্দ দিয়ে যুগান্তকারী ইসলামের খেদমত করেছেন। তেমনি জননেত্রী শেখ হাসিনাও কওমি বোর্ড তথা কওমি স্বীকৃতি দিয়ে ইতিহাস গড়েছেন। কারণ পাকিস্তান বাংলাদেশ প্রিয়ডে সকল সরকারের সময় আলেমদের উক্ত দাবি সকল সরকার প্রত্যাখ্যান করেছেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ধর্ম মন্ত্রী আলহাজ্ব ফরিদুল হক খান দুলাল বলেন, মাহে রমজানে যখন সবাই যার যার কাজে ব্যস্ত তখন ওলামা মাশায়েখ সংগঠনের সভাপতি মুফতি সিরাজী সাব ও প্রকৃত আলেমগণ স্বাধীনতা দিবস এবং বদরী সাহাবীদের স্মরণে কুরআনখানী অনুষ্ঠিত করে দেশ ও জাতির কাজে নিজেদেরকে কোরবানী করছেন। মুফতি আল্লামা আব্দুল হালিম সিরাজীর সার্বিক ব্যবস্থাপনা ও সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাওঃ শওকত আমীন, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মাওঃ আখতারুজ্জামান, যুগ্ম সম্পাদক মাওঃ তাজাম্মুল হুসাইন খান, যুগ্ম সম্পাদক মুফতী আল আমীন, মাওলানা ইউসুফ সিদ্দিকী এবং দৈনিক হাওর বার্তার সম্পাদক মোহাম্মদ  জাকির হোসাইন প্রমুখ।

খালেদা নিজামীর জিঘাংসার শিকার কারা নির্যাতিত আলেম মুফতি আল্লামা আব্দুল হালিম সিরাজী সভাপতির বক্তব্যে বলেন, সরকারের উচিত ত্যাগী যোগ্য আলেমদের দ্বারা অবিলম্বে ইসলামিক ফাউন্ডেশন, হজ্জ অফিস ও ওয়াক্ফ প্রশাসন পরিচালনা করা। পরিশেষে মুফতি সিরাজী আবেগঘণ মোনাজাতে জাতির পিতা, ৩০ লক্ষ শহীদ, ১৫ আগস্টের শহীদ, ৫২’র ভাষা শহীদ, বদরী ১৪ জন শহীদ সাহবীদের শাহাদাতের নাজরানা কবুল করার জন্য প্রার্থনা করেন এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, শেখ রেহানা, শেখ পরিবার, মুক্তিযুদ্ধ পরিবার ও শহীদ পরিবারদের সদস্যদের জন্য দীর্ঘ নেক হায়াত কামনা করে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।