ঢাকা ১০:০৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাসের সিটে বসা নিয়ে দন্ধ, পায়ের রগ কেটে যায় হেলপারের

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ১২:৩৫:৩৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৬ এপ্রিল ২০২৪
  • ৩৩ বার

মদন (নেত্রকোণা) প্রতিনিধিঃ নেত্রকোণার মদনে বাসের সিটে বসা নিয়ে দন্ধে তারেক নামের এক হেলপারের পায়ের রগ কেটে যায়। গুরুতর আহত তারেককে প্রথমে উদ্ধার করে মদন হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। শুক্রবার (০৫ এপ্রিল-২০২৪) বুড়াপীর মাজারের পাশে পারুল কাউন্টারে সামনে এ ঘটনা ঘটে।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় যাত্রীবাহী পারুল বাসটি চট্রগ্রাম থেকে মদন আসার পথে চট্টগ্রামের স্টেশন মাস্টার রাহুল টিকিট ছাড়া ইয়াছিনসহ দুইজন যাত্রী মদনের উদ্দেশ্যে তুলে দেন। তাদের দুইজন সিটে না বসে মোড়াতে বসে মদন আসবেন এমন শর্ত থাকলেও তারা গাড়ীর সামনের সিটে বসেন।

কিছুক্ষণ পর বাসটির সুপারভাইজার সাকারুল টিকিট না থাকায় দুইজনকে পিছনের সিটে বসতে বলেন। এ নিয়ে দুই যাত্রী ও সুপারভাইজারের সাথে তর্কবিতর্ক হয়। পরে বাসে থাকা যাত্রীরা তাদের বিষয়টি নিষ্পত্তি করে।

বিষয়টি দুই যাত্রী বাড়িতে মোবাইলে জানায় তাদের মারপিট করা হয়েছে। তাদের লোকজন সরকারি কলেজ মোড়ে আসার জন্য অপেক্ষা করতে বলে। বাসটি সকাল আনুমানিক সাড়ে ছয়টার দিকে বুড়াপীরের মাজার সংলগ্ন পারুল কাউন্টারে পৌছতেই ইয়াছিনের লোকজন বাসটিতে উঠে হামলা চালায়।

এক পযার্য়ে বাসের কাঁচ ভেঙ্গে গেলে, তা থেকে হেলপার তারেকের পায়ের রগ কেটে গুরতর আহত হয়। ড্রাইভারসহ অন্যানদের কিলঘুষি মারতে থাকে। এ সময় হামলাকারীরা নগদ টাকা, আইডি কার্ড নিয়ে যায়। এ নিয়ে বাসটির আরেক হেলপার সাইদুল ইসলাম মদন থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

মদন থানার ওসি (তদন্ত) জাহাঙ্গীর আলম খান জানান, বাসে মারামারির ঘটনায় একজন ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি আছে শুনেছি। তবে এখনও কোন অভিযোগ পাইনি। পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

বাসের সিটে বসা নিয়ে দন্ধ, পায়ের রগ কেটে যায় হেলপারের

আপডেট টাইম : ১২:৩৫:৩৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৬ এপ্রিল ২০২৪

মদন (নেত্রকোণা) প্রতিনিধিঃ নেত্রকোণার মদনে বাসের সিটে বসা নিয়ে দন্ধে তারেক নামের এক হেলপারের পায়ের রগ কেটে যায়। গুরুতর আহত তারেককে প্রথমে উদ্ধার করে মদন হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। শুক্রবার (০৫ এপ্রিল-২০২৪) বুড়াপীর মাজারের পাশে পারুল কাউন্টারে সামনে এ ঘটনা ঘটে।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় যাত্রীবাহী পারুল বাসটি চট্রগ্রাম থেকে মদন আসার পথে চট্টগ্রামের স্টেশন মাস্টার রাহুল টিকিট ছাড়া ইয়াছিনসহ দুইজন যাত্রী মদনের উদ্দেশ্যে তুলে দেন। তাদের দুইজন সিটে না বসে মোড়াতে বসে মদন আসবেন এমন শর্ত থাকলেও তারা গাড়ীর সামনের সিটে বসেন।

কিছুক্ষণ পর বাসটির সুপারভাইজার সাকারুল টিকিট না থাকায় দুইজনকে পিছনের সিটে বসতে বলেন। এ নিয়ে দুই যাত্রী ও সুপারভাইজারের সাথে তর্কবিতর্ক হয়। পরে বাসে থাকা যাত্রীরা তাদের বিষয়টি নিষ্পত্তি করে।

বিষয়টি দুই যাত্রী বাড়িতে মোবাইলে জানায় তাদের মারপিট করা হয়েছে। তাদের লোকজন সরকারি কলেজ মোড়ে আসার জন্য অপেক্ষা করতে বলে। বাসটি সকাল আনুমানিক সাড়ে ছয়টার দিকে বুড়াপীরের মাজার সংলগ্ন পারুল কাউন্টারে পৌছতেই ইয়াছিনের লোকজন বাসটিতে উঠে হামলা চালায়।

এক পযার্য়ে বাসের কাঁচ ভেঙ্গে গেলে, তা থেকে হেলপার তারেকের পায়ের রগ কেটে গুরতর আহত হয়। ড্রাইভারসহ অন্যানদের কিলঘুষি মারতে থাকে। এ সময় হামলাকারীরা নগদ টাকা, আইডি কার্ড নিয়ে যায়। এ নিয়ে বাসটির আরেক হেলপার সাইদুল ইসলাম মদন থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

মদন থানার ওসি (তদন্ত) জাহাঙ্গীর আলম খান জানান, বাসে মারামারির ঘটনায় একজন ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি আছে শুনেছি। তবে এখনও কোন অভিযোগ পাইনি। পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।