বাইডেনকে হাত-পা বেঁধে ফেলে রাখা হয়েছে ট্রাকে

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে হাত-পা বেঁধে ফেলে রাখা হয়েছে ট্রাকে। সেই ভিডিও আবার পোস্ট করেছেন সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এ ঘটনায় তীব্র সমালোচনা শুরু হয়েছে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে।

বাস্তবে আসলে বাইডেনকে বেঁধে রাখা হয়নি। মার্কিন প্রেসিডেন্টকে বেঁধে রাখার এডিট করা ওই ছবিটি ট্রাকে করে নিয়ে যাচ্ছিলেন ট্রাম্পের সমর্থকরা।

ট্রাম্প জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার লং আইল্যান্ডে যখন তিনি পুলিশ কর্মকর্তা জোনাথন ডিলারের স্মরণ উৎসবে উপস্থিত ছিলেন, তখন ভিডিওতে ধারণ করা হয়েছিল।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, একটি ট্রাকে পতাকা ও ডেক্যালসহ ট্রাম্পের প্রতি সমর্থন প্রকাশ করা হচ্ছে। দ্বিতীয় ট্রাকে ছিল বাইডেনের ছবিটি।

ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারণার মুখপাত্র স্টিভেন চেউং এক বিবৃতিতে বলেছেন, ‘ছবিটি একটি পিক আপ ট্রাকের পিছনে ছিল যা হাইওয়ে দিয়ে যাচ্ছিল। ডেমোক্র্যাট এবং উন্মাদরা শুধু প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে ঘৃণ্য সহিংসতার ডাক দেয়নি, তারা আসলে তার বিরুদ্ধে বিচার ব্যবস্থাকে অস্ত্র হিসাবে ব্যবহার করছে।’

বাইডেনের প্রচারণার মুখপাত্র মাইকেল টাইলার একটি বিবৃতিতে সিএনএনকে বলেছেন, ‘ডোনাল্ড ট্রাম্পের এই ছবিটি এমন বাজে ধরনের পোস্ট, ঠিক যেমনটি তিনি রক্তস্নান করার জন্য ডাকছেন বা যখন গর্বিত ছেলেদের ফিরে দাঁড়াতে ও পাশে দাঁড়াতে বলছেন। ট্রাম্প নিয়মিতভাবে রাজনৈতিক সহিংসতাকে উস্কে দিচ্ছেন এবং সময় এসেছে তার বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে বিচার করার- কেবলমাত্র ক্যাপিটল পুলিশ অফিসারদের জিজ্ঞাসা করুন যারা আমাদের গণতন্ত্র রক্ষায় ৬ জানুয়ারিতে আক্রমণের শিকার হয়েছিলেন।’

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর