তুরস্কে অভিবাসী নৌকা ডুবি, ৭ শিশুসহ নিহত ২২

তুরস্কের এজিয়ান সাগরের গোকসিয়াদা দ্বীপের কাছে একটি নৌকা ডুবে ৭ শিশুসহ ২২ জন নিহত হয়েছেন।শুক্রবার (১৫ মার্চ) এক বিবৃতিতে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ এ তথ্য জানায়।

এতে বলা হয়, তুরস্কের কোস্টগার্ড ২২ জনের মরদেহ উদ্ধার করেছে। এর মধ্যে ৭ জন শিশু রয়েছে। নিহতরা কোন দেশের নাগরিক তা জানানো হয়নি।

কর্তৃপক্ষ বলছে, দুর্ঘটনা রাতেই সংঘটিত হয়েছে। গোকসিয়াদার কাছে কাবাটেপেতে বেশ কয়েকটি অ্যাম্বুলেন্স অপেক্ষমাণ। উদ্ধার অভিযান চলছে। উদ্ধার কাজে একটি প্লেন, দুটি হেলিকপ্টার, একটি ড্রোন, ১৮টি নৌকা ও ৫০২ জন উদ্ধারকর্মী অংশ নিয়েছেন।

বিশ্বের সবচেয়ে দরিদ্র ১০ দেশের তালিকা প্রকাশ
গভর্নর ইলহামি আকতাস বলেন, তুর্কি কোস্টগার্ড কানাতালে প্রদেশের ইসেবাত শহরের উপকূল থেকে দুজনকে উদ্ধার করেছে। তারা নিজ থেকেই উপকূলে আসতে পেরেছেন।

তুরস্কের কোস্টগার্ড জানায়, সপ্তাহের শুরু থেকে তারা অবৈধভাবে গ্রীসে যাওয়ার পথে শতাধিক মানুষকে বাধা দিয়েছে। এর মধ্যে শিশুরাও ছিল।

গ্রীস অবৈধ অভিবাসী বোঝাই নৌকা ঠেলে দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে তুরস্ক।

২০২৩ সালের ডিসেম্বরে দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেফ তাইয়েপ এরদোয়ান এথেন্সে ভ্রমণ করেন। এ সময় গ্রীসের সঙ্গে অবৈধ অভিবাসীদের ব্যাপারে দুই দেশ সমস্যা নিরসনে কাজ করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করে।

 

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর