ট্রাম্প ক্ষমতায় এলে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ শেষ হবে: হাঙ্গেরির প্রধানমন্ত্রী

হাঙ্গেরির প্রধানমন্ত্রী ভিক্টর অরবান বলেছেন, ডোনাল্ড ট্রাম্প আবারও মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলে রাশিয়ার আগ্রাসনের বিরুদ্ধে ইউক্রেনের লড়াইয়ের জন্য অর্থায়ন করবেন না। তিনি রাশিয়ার বিরুদ্ধে লড়াই করতে ইউক্রেনকে একটি পয়সাও দেবেন না। তখন যুদ্ধ এমনিতেই শেষ হয়ে যাবে।

ফ্লোরিডায় ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠকের পর রোববার (১০ মার্চ) শেষ রাতে হাঙ্গেরির এম১ টিভি চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে অরবান তিনি এই মন্তব্য করেছেন। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ খবর জানিয়েছে।

অরবান বলেন, এটি পরিষ্কার যে, ইউক্রেন নিজের পায়ে দাঁড়াতে পারে না। ইউরোপীয়দের পাশাপাশি মার্কিনরা যদি অর্থ ও অস্ত্র না দেয়, তাহলে যুদ্ধ শেষ হয়ে যাবে। যুক্তরাষ্ট্র অর্থ না দিলে ইউরোপীয়রা একা যুদ্ধের খরচ চালাতে পারবে না।

ওরবান জানান, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ কীভাবে শেষ করা যায়, সে বিষয়ে ট্রাম্পের বিস্তারিত পরিকল্পনা আছে।

২০২৪ সালের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হাঙ্গেরির প্রধানমন্ত্রী তার দীর্ঘদিনের মিত্র ট্রাম্পকে প্রকাশ্যে সমর্থন দিচ্ছেন। গত শুক্রবার ফ্লোরিডায় ট্রাম্পের মার-এ-লাগো প্রাসাদে তার সঙ্গে সাক্ষাত করেন অরবান। অতিথির প্রশংসা করে ট্রাম্প বলেন, ‘ভিক্টর অরবানের চেয়ে স্মার্ট বা ভালো নেতা আর কেউ নেই। তিনি অসাধারণ।’

এবারের আমেরিকা সফরের সময় অরবান বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সঙ্গে দেখা করেননি। বিদেশি কোনো নেতার যুক্তরাষ্ট্র সফরকালে বর্তমান প্রেসিডেন্টকে বাদ দিয়ে সাবেক প্রেসিডেন্টের সঙ্গে দেখা করার এমন ঘটনা বিরল।

ওরবান প্রায়ই রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের বিরতি এবং শান্তি আলোচনার আহ্বান জানায়। তার মতে, ট্রাম্পের পুনরায় ফিরে আসা সংঘাতের অবসানের জন্য সবচেয়ে ভালো উপায়।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর