মার্কিন জাহাজে হুথিদের ক্ষেপণাস্ত্র হামলা, নিহত ৩

ইয়েমেনের দক্ষিণে একটি কার্গো জাহাজে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে ইরান সমর্থিত বিদ্রোহী গোষ্ঠী হুথি। এতে অন্তত তিনজন ক্রু নিহত হয়েছেন। মার্কিন কর্মকর্তারা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বুধবার রাত সাড়ে ১১টায় এডেন উপসাগরে কার্গো জাহাজ ‘ট্রু কনফিডেন্সে’এই হামলার ঘটনা ঘটে। মার্কিন সামরিক বাহিনীর সেন্ট্রাল কমান্ড হামলার শিকার ওই কার্গো জাহাজের একটি ছবি প্রকাশ করেছে। খবর বিবিসির।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কার্গো জাহাজে হুথিদের হামলার পর প্রথমবারের মতো প্রাণহানির ঘটনা ঘটল।

বার্বাডোসের পতাকাবাহী ‘ট্রু কনফিডেন্স’ জাহাজটি পরিত্যক্ত করা হয়েছে এবং জাহাজে আগুন জ্বলছিল। এডেন উপসাগরে জাহাজটি হামলার স্বীকার হয়েছে।

হুথিদের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, গাজায় ইসরাইল ও হামাসের যুদ্ধে ফিলিস্তিনিদের সমর্থনে তাদের এসব হামলা।

এক বিবৃতিতে হুথি আরও জানিয়েছে, জাহাজটির ক্রুরা তাদের দেওয়া সতর্কতা অবজ্ঞা করেছে।

এদিকে ইয়েমেনে নিযুক্ত ব্রিটিশ দূতাবাস বলেছে, নাবিকদের মৃত্যুর ঘটনা দুঃখজনক তবে আন্তর্জাতিক জাহাজে হুথির হামলার জবাব হবে অনিবার্য।

মার্কিন সামরিক বাহিনীর সেন্ট্রাল কমান্ড (সেন্টকম) মধ্যপ্রাচ্যে সামরিক কর্মকাণ্ড ও অপারেশন তত্ত্বাবধান করে থাকে। সেন্টকম বলেছে, হামলায় তিনজন ক্রু সদস্য নিহত হয়েছেন এবং অন্তত চারজন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে তিনজনের অবস্থা গুরুতর।

সোশ্যাল মিডিয়ায় দেওয়া এক পোস্টে সেন্টকম আরও বলেছে, ‘হুথিদের এই বেপরোয়া আক্রমণগুলো বিশ্ব বাণিজ্যকে ব্যাহত করেছে এবং আন্তর্জাতিক নাবিকদের জীবন কেড়ে নিয়েছে।’

অন্যদিকে এক বিবৃতিতে ইরান-সমর্থিত শক্তিশালী সশস্ত্র হুথি গোষ্ঠী বলেছে, ট্রু কনফিডেন্সের ক্রুরা হুথি নৌবাহিনীর জারি করা সতর্কতা উপেক্ষা করেছিল।

মার্কিন ও ব্রিটিশ কর্মকর্তারা এর আগে হুথিদের এই হামলায় দুজন নিহত ও আরও ছয়জন আহত হওয়ার কথা জানিয়েছিলেন। পরে নিহতের সংখ্যা তিনজন বলে জানানো হয়।

বিবিসি বলছে, জাহাজটিতে ২০ জন ক্রু ছিলেন। তাদের মধ্যে একজন ভারতীয়, চারজন ভিয়েতনামী এবং ১৫ জন ফিলিপিনো নাগরিক। এছাড়া তিনজন সশস্ত্র রক্ষীও ছিল জাহাজটিতে। যাদের মধ্যে দুজন শ্রীলঙ্কার এবং একজন নেপালের।

জাহাজটির মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান জানিয়েছে, ইয়েমেনের এডেন শহরের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ৫০ নটিক্যাল মাইল দূরে জাহাজটিতে হামলা হয়। তবে ক্রুদের অবস্থার বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে তারা কোনও কিছু জানাতে পারেনি।

এদিকে হামলার পর হুথি পরিচালিত আল-মাসিরাহ টিভি বুধবার সন্ধ্যায় জানিয়েছে, হুথি-নিয়ন্ত্রিত লোহিত সাগরের বন্দর শহর হুদেইদাহ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরকে লক্ষ্য করে মার্কিন নেতৃত্বাধীন বাহিনী বিমান হামলা চালিয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর