ঢাকা ১১:৪৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

১৩ দিনের সফরে ঢাকা ত্যাগ করেছেন : রাষ্ট্রপতি

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ১০:৪২:২৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • ৭৩ বার

হাওর বার্তা ডেস্কঃ ১৩ দিনের সফরে ইন্দোনেশিয়া ও সিঙ্গাপুরের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন।

রাষ্ট্রপতি ও তার স্ত্রী অধ্যাপক ড. রেবেকা সুলতানাসহ সফরসঙ্গীদের বহনকারী বাংলাদেশ বিমান এয়ারলাইন্সের একটি ভিভিআইপি (বিজি ১৯১০) ফ্লাইট সোমবার (৪ সেপ্টেম্বর) সকাল ৮টা ৪১ মিনিটে ঢাকা হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করে।

ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট এবং ২০২৩ সালের আসিয়ান চেয়ার জোকো উইডোডোর (যিনি জোকোই নামে পরিচিত) আমন্ত্রণে রাষ্ট্রপতি জাকার্তা কনভেনশন সেন্টারে (জেসিসি) ৫ থেকে ৭ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠেয় ৪৩তম আসিয়ান (দক্ষিণ-পূর্ব এশীয় দেশগুলোর সংস্থা) শীর্ষ সম্মেলনে এবং ১৮তম পূর্ব এশিয়া শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দেবেন।

প্রেস সচিব জয়নাল আবেদিন বলেন, রাষ্ট্রপতি জাকার্তা কনভেনশন সেন্টারে (জেসিসি) আসিয়ান (অ্যাসোসিয়েশন অব সাউথইস্ট এশিয়ান নেশনস) শীর্ষ সম্মেলন এবং পূর্ব এশিয়া শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দেবেন।

‘আসিয়ান ম্যাটার্স: এপিসেন্ট্রাম অব গ্রোথ’ থিম নিয়ে তিন দিনের আসিয়ান শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। আসিয়ান সম্মেলনের পাশাপাশি ৭ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠেয় ‘ইস্ট এশিয়া সামিট’-এও যোগ দেবেন রাষ্ট্রপতি।

পাশাপাশি গেস্ট অব চেয়ার হিসেবে আইওআর’র দৃষ্টিকোণ থেকে বৃদ্ধির কেন্দ্রকে সমর্থন করার জন্য আঞ্চলিক সম্পর্ককে শক্তিশালী করার বিষয়ে সমাপনী ভাষণ দেবেন তিনি।

এছাড়াও মো. সাহাবুদ্দিন তার ইন্দোনেশিয়ার প্রতিপক্ষ জোকো উইডোডো এবং থাইল্যান্ড, মালয়েশিয়া ও তিমুর-লেস্তের রাষ্ট্রীয় নেতাদের সঙ্গে পৃথক দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করবেন।

৬ সেপ্টেম্বর রাষ্ট্রপতি হুতান কোটা গেলোরা বুং কার্নোতে ইন্দোনেশিয়ার রাষ্ট্রপতি কর্তৃক আয়োজিত গালা নৈশভোজে যোগ দেবেন।

জোকো উইডোডো ৪৩তম আসিয়ান শীর্ষ সম্মেলনে ১২টি বৈঠকে সভাপতিত্ব করবেন।

এএসইএএন হল ১১টি দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোর একটি আন্তঃসরকারি সংস্থা- ব্রুনাই দারুসসালাম, কম্বোডিয়া, ইন্দোনেশিয়া, লাও পিডিআর, মালয়েশিয়া, মিয়ানমার, ফিলিপাইন, সিঙ্গাপুর, থাইল্যান্ড, ভিয়েতনাম ও তিমুর লেস্টে বা পূর্ব তিমুর।

আসিয়ান শীর্ষ সম্মেলন হলো এর সদস্যদের দ্বারা অনুষ্ঠিত একটি দ্বিবার্ষিক সভা। আসিয়ান সচিবালয় অনুসারে, ইন্দোনেশিয়ার রাষ্ট্রপতি ১৮তম পূর্ব এশিয়া শীর্ষ সম্মেলনের (ইএএস) সভাপতিত্ব করবেন।

১০টি আসিয়ান দেশ, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়ান ফেডারেশন, নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, চীন, জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া ও ভারতসহ ১৮ সদস্য নিয়ে এটি গঠিত।

প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপ ফোরামের নেতা, কানাডার প্রধানমন্ত্রী, আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) নির্বাহী পরিচালক এবং বিশ্বব্যাংক (বিশ্বব্যাংক)ও আসিয়ান সম্মেলনে যোগ দেওয়ার পরিকল্পনা করছেন বলে জানা গেছে।

আসিয়ান শীর্ষ সম্মেলন এবং পূর্ব এশিয়া শীর্ষ সম্মেলন শেষ করে রাষ্ট্রপতি সাহাবুদ্দিন স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য সিঙ্গাপুরের উদ্দেশে জাকার্তা ত্যাগ করবেন।

সংশোধিত সময়সূচি অনুসারে ১৬ সেপ্টেম্বর সিঙ্গাপুর থেকে দেশে ফেরার কথা রয়েছেন রাষ্ট্রপতির।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

জনপ্রিয় সংবাদ

১৩ দিনের সফরে ঢাকা ত্যাগ করেছেন : রাষ্ট্রপতি

আপডেট টাইম : ১০:৪২:২৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩

হাওর বার্তা ডেস্কঃ ১৩ দিনের সফরে ইন্দোনেশিয়া ও সিঙ্গাপুরের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন।

রাষ্ট্রপতি ও তার স্ত্রী অধ্যাপক ড. রেবেকা সুলতানাসহ সফরসঙ্গীদের বহনকারী বাংলাদেশ বিমান এয়ারলাইন্সের একটি ভিভিআইপি (বিজি ১৯১০) ফ্লাইট সোমবার (৪ সেপ্টেম্বর) সকাল ৮টা ৪১ মিনিটে ঢাকা হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করে।

ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট এবং ২০২৩ সালের আসিয়ান চেয়ার জোকো উইডোডোর (যিনি জোকোই নামে পরিচিত) আমন্ত্রণে রাষ্ট্রপতি জাকার্তা কনভেনশন সেন্টারে (জেসিসি) ৫ থেকে ৭ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠেয় ৪৩তম আসিয়ান (দক্ষিণ-পূর্ব এশীয় দেশগুলোর সংস্থা) শীর্ষ সম্মেলনে এবং ১৮তম পূর্ব এশিয়া শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দেবেন।

প্রেস সচিব জয়নাল আবেদিন বলেন, রাষ্ট্রপতি জাকার্তা কনভেনশন সেন্টারে (জেসিসি) আসিয়ান (অ্যাসোসিয়েশন অব সাউথইস্ট এশিয়ান নেশনস) শীর্ষ সম্মেলন এবং পূর্ব এশিয়া শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দেবেন।

‘আসিয়ান ম্যাটার্স: এপিসেন্ট্রাম অব গ্রোথ’ থিম নিয়ে তিন দিনের আসিয়ান শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। আসিয়ান সম্মেলনের পাশাপাশি ৭ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠেয় ‘ইস্ট এশিয়া সামিট’-এও যোগ দেবেন রাষ্ট্রপতি।

পাশাপাশি গেস্ট অব চেয়ার হিসেবে আইওআর’র দৃষ্টিকোণ থেকে বৃদ্ধির কেন্দ্রকে সমর্থন করার জন্য আঞ্চলিক সম্পর্ককে শক্তিশালী করার বিষয়ে সমাপনী ভাষণ দেবেন তিনি।

এছাড়াও মো. সাহাবুদ্দিন তার ইন্দোনেশিয়ার প্রতিপক্ষ জোকো উইডোডো এবং থাইল্যান্ড, মালয়েশিয়া ও তিমুর-লেস্তের রাষ্ট্রীয় নেতাদের সঙ্গে পৃথক দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করবেন।

৬ সেপ্টেম্বর রাষ্ট্রপতি হুতান কোটা গেলোরা বুং কার্নোতে ইন্দোনেশিয়ার রাষ্ট্রপতি কর্তৃক আয়োজিত গালা নৈশভোজে যোগ দেবেন।

জোকো উইডোডো ৪৩তম আসিয়ান শীর্ষ সম্মেলনে ১২টি বৈঠকে সভাপতিত্ব করবেন।

এএসইএএন হল ১১টি দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোর একটি আন্তঃসরকারি সংস্থা- ব্রুনাই দারুসসালাম, কম্বোডিয়া, ইন্দোনেশিয়া, লাও পিডিআর, মালয়েশিয়া, মিয়ানমার, ফিলিপাইন, সিঙ্গাপুর, থাইল্যান্ড, ভিয়েতনাম ও তিমুর লেস্টে বা পূর্ব তিমুর।

আসিয়ান শীর্ষ সম্মেলন হলো এর সদস্যদের দ্বারা অনুষ্ঠিত একটি দ্বিবার্ষিক সভা। আসিয়ান সচিবালয় অনুসারে, ইন্দোনেশিয়ার রাষ্ট্রপতি ১৮তম পূর্ব এশিয়া শীর্ষ সম্মেলনের (ইএএস) সভাপতিত্ব করবেন।

১০টি আসিয়ান দেশ, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়ান ফেডারেশন, নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, চীন, জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া ও ভারতসহ ১৮ সদস্য নিয়ে এটি গঠিত।

প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপ ফোরামের নেতা, কানাডার প্রধানমন্ত্রী, আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) নির্বাহী পরিচালক এবং বিশ্বব্যাংক (বিশ্বব্যাংক)ও আসিয়ান সম্মেলনে যোগ দেওয়ার পরিকল্পনা করছেন বলে জানা গেছে।

আসিয়ান শীর্ষ সম্মেলন এবং পূর্ব এশিয়া শীর্ষ সম্মেলন শেষ করে রাষ্ট্রপতি সাহাবুদ্দিন স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য সিঙ্গাপুরের উদ্দেশে জাকার্তা ত্যাগ করবেন।

সংশোধিত সময়সূচি অনুসারে ১৬ সেপ্টেম্বর সিঙ্গাপুর থেকে দেশে ফেরার কথা রয়েছেন রাষ্ট্রপতির।