,

আসছে উড়ে শ্বেত কবুতর

 ড. গোলসান আরা বেগমঃ

নারীকে শোষণ নির্যাতন অবমূল্যায়ন
আর কতো করবে
হাতে পায়ে বেড়ি দিয়ে চূল ধরে টেনে
গৃহকোণে বেঁধে রাখবে।

নারী সত্ত্বাকে হত্যা করে, চাওয়া পাওয়াকে
কেন কেটে করবে খাটো
আকাশ ঘুরে মহাশূণ্যে পৌঁছে দেখেছি
নারীর পৃথিবীটা নয় ছোট।

পাপিয়া পূর্ণিমা এখন প্রতিবাদে প্রতিরোধে
আঙ্গুল তুলে করে গর্জন
পা রাখে ধর্মে কর্মে মানানসই আড্ডায়
ফুলের বিছানা করে বর্জন।

পাল্লায় মাপে তার মেধা বুদ্ধি সক্ষমতা
কতটুকু পেয়েছে অধিকার
পুরুষ শাসিত সমাজ নোংড়ামি ছাড়া
দিয়েছে কি উপহার।

পুরুষের চোখ রাঙানি পেশী শক্তির দাপটে
নারীরা ভীত লজ্জিত নয়
বরং ক্ষিপ্ত হয়ে আঙ্গুল তুলে করে গর্জন
চোখ খুলে ক্ষুদ্ধ হয়।

আসছে উড়ে বিজয়ের পতাকা হাতে
নারীর পক্ষে শ্বেতকবুতর
পুরুষ শাসিত সমাজের কালিমা মুছে
পরিস্কার করতে অন্তর।

পুরুষরা খানাপিনা শক্তি ক্ষমতা যতকিছু
রেখেছে নিজের দখলে
একদিন নারীর পদ ভারে হৃদয় ভাঙ্গন থেমে
তালা চাবি যাবে বদলে।।

বুকের ভেতর কত দুঃখ ব্যথা করছে
টলমল জলে গড়াগড়ি
পায়ের নীচে মানবতার শক্ত গাঁথনে এসো
নারী পুরুষে বাঁধন গড়ি।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর