,

14

লক্ষ্মীপুরে হত্যা মামলায় যুবকের যাবজ্জীবন

হাওর বার্তা ডেস্কঃ লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলায় একজনকে হত্যার দায়ে হারুনুর রশিদ হারুন নামে এক যুবকের যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে, আরও এক বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। হত্যার শিকার ওই ব্যক্তির নাম জলিল সর্দার।

মঙ্গলবার (২৮ জুন) দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. রহিবুল ইসলাম এ রায় দেন।

লক্ষ্মীপুর জেলা ও জজ আদালতের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) জসিম উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, আদালতে হারুনের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে। অন্য তিনজন অভিযুক্তের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় আদালত তাদেরকে খালাস দিয়েছেন। রায়ের সময় দণ্ডপ্রাপ্ত হারুনসহ সব আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত হারুন রায়পুর উপজেলার চরবংশী গ্রামের হযরত বেপারীর ছেলে। খালাস প্রাপ্তরা হলেন আবুল কালাম, আবুল কাশেম জাহেদ ও তোফায়েল পালোয়ান। অন্যদিকে নিহত জলিল সর্দার রায়পুরের উদমারা গ্রামের সিরাজ সর্দারের ছেলে। তিনি পেশায় ইলেক্টিশিয়ান ছিলেন।

আদালত ও এজাহার সূত্র জানায়, ২০১৬ সালের ৫ জানুয়ারি রাতে হারুন পার্শ্ববর্তী বেড়ীর পাশে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে জলিলকে ডেকে নেন। পরদিন দুপুরে স্থানীয় আওয়াল দেওয়ানের ধানক্ষেত থেকে জলিলের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। একই দিন ছেলে হত্যার ঘটনায় সিরাজ সর্দার বাদী হয়ে হারুনসহ ৫ জনকে আসামি করে রায়পুর থানায় মামলা দায়ের করেন।

এদিকে তদন্ত শেষে তদন্তকারী কর্মকর্তা লক্ষ্মীপুর জেলা সি আইডির পুলিশ পরিদর্শক আবু জাহের সরকার ও হাজিমারা পুলিশ ফাঁড়ির এসআই সিরাজ মিয়া ২০১৭ সালের ১ জানুয়ারি ৪ জনের বিরুদ্ধে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেন। সাক্ষীদের সাক্ষ্যগ্রহণ ও দীর্ঘ শুনানি শেষে আদালত হারুনুর রশিদকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর