,

image-546575-1651229629

লাখো আলেয়াদের মুখে হাসি ফোটাতে হাজার বছর বেঁচে থাকুন বঙ্গবন্ধুকন্যা

হাওর বার্তা ডেস্কঃ ‘বৃদ্ধা আলেয়া বেগম প্রায় তিন যুগ ধরে বরগুনা শহরের ভাড়ানি খালের মাছ বাজার ব্রিজের নিচে বসবাস করে আসছেন। ব্রিজের নিচে ময়লার ভাগাড়ের পাশেই কাঠের তক্তা পেতে কোনোমতে একটি খুপরি ঘর তুলেছেন তিনি। এখানেই ৯টি সন্তান জন্ম দেন আলেয়া। শিশু সন্তানদের ঘুমিয়ে রেখে জীবিকার তাড়নায় বাজারে কাজে যেতেন তিনি; এসে দেখতেন খাট থেকে গড়িয়ে পড়ে খালের পানিতে ডুবে মরে পড়ে আছে নাড়িছেঁড়া ধনটি। এভাবে একটি স্বাভাবিক ঘরের অভাবে নয়টি সন্তানই মারা যায় তার।’

শুক্রবার প্রধানমন্ত্রীর সহকারী প্রেস সচিব-১ এম এম ইমরুল কায়েস তার ভেরিফায়েড ফেসবুক অ্যাকাউন্টে দেওয়া এক স্ট্যাটাসে এসব তথ্য জানান।

তিনি আরও লিখেন, ‘অবশেষে, বরগুনা সদরের খাজুরতলা আশ্রয়ণ প্রকল্পের একটি ঘরে এবার ঠাঁই হলো ৬৫ বছরের আলেয়া বেগমের। এরকম লাখ লাখ আলেয়াদের দোয়া ও আশীর্বাদে, দুখী মানুষের মুখে হাসি ফোটানোর জন্য হাজার বছর বেঁচে থাকুন আপনি, বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা।’

ইমরুল কায়েস বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত ২৬ এপ্রিল তৃতীয় পর্যায়ে সারা দেশে ৩২ হাজার ৯০৪টি অনগ্রসর-ছিন্নমূল পরিবারের কাছে ঈদ উপহার হিসেবে জমিসহ ঘর হস্তান্তর করেন। এ উপলক্ষে টিভি-প্রিন্ট-অনলাইন মিডিয়ার ২১ সদস্যের একটি টিম নিয়ে গত ২৫ এবং ২৬ এপ্রিল কাজ করেছি বরগুনা শহরে। ঘুরে ঘুরে স্বচোখে দেখেছি প্রথম ও দ্বিতীয় পর্যায়ে ঘর পাওয়া দুস্থ-নিঃস্ব মানুষের পরিবর্তিত নতুন জীবন আর শুনেছি তাদের দিন বদলের গল্প; অবলোকন করেছি তৃতীয় পর্যায়ে অর্থাৎ এবারে ঈদ উপহার পাওয়া ভূমিহীন-গৃহহীনদের আনন্দ অশ্রু।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর