,

image-159071-1640000712

পাকিস্তানের জন্য ‘মেঘ না চাইতেই বৃষ্টি’

হাওর বার্তা ডেস্কঃ দীর্ঘ ১৮ বছর পর চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে পাকিস্তান সফরে গিয়েও নিরাপত্তার কারণে প্রথম ওয়ানডের টস হওয়ার আগ মুহূর্তেই সফর বাতিল করে দেশে ফিরে যায় নিউজিল্যান্ড দল। যে কারণে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়তে হয় কিউইদের। প্রায় দশ বছর পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট যখন নিয়মিত হতে চলেছে পাকিস্তানে, তখন নিউজিল্যান্ডের এমন আচরণে ফের শঙ্কার মুখে পড়তে হয় দেশটির ক্রিকেটকে।

শেষ পর্যন্ত নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড আশ্বস্ত করে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডকে (পিসিবি) যে তারা এই সফর পুনরায় করবে। তবে এবার মেঘ না চাইতেই বৃষ্টি পেল পিসিবি। কিউই ক্রিকেট জানিয়েছে, ক্ষতিপূরণ হিসেবে আগামী ২০২২-২৩ মৌসুমে দুই বছরে দুইবার সফরের সূচি চূড়ান্ত করেছে নিউজিল্যান্ড।

আইসিসির ফিউচার ট্যুর প্ল্যান (এফটিপি) অনুযায়ী আগামী বছরের ডিসেম্বরে প্রথমবার পাকিস্তান সফর করবে নিউজিল্যান্ড। সফরে থাকছে আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের দুটি ম্যাচ ও ওয়ানডে সুপার লিগের তিনটি ম্যাচ।

২০২৩ সালে দ্বিতীয়বার সফর করবে এপ্রিলে। এই সফরে খেলার কথা রয়েছে ৫টি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। বলা হচ্ছে ২০২১ সালে বাতিল হওয়া সফরটিই মূলত ২০২৩ সালে হবে।

পাকিস্তানে কিউইদের দুইবারের সফরের বিষয়টি সোমবার এক বিবৃতিতে নিশ্চিত করেছে পিসিবি। জানানো হয়েছে, দুই বোর্ড মিলে কাজ করছে সূচি নির্ধারণ নিয়ে।

নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডকে সাধুবাদ জানিয়ে পিসিবি চেয়ারম্যান রমিজ রাজা বলেছেন, ‘এটা নিঃসন্দেহে দারুণ ব্যাপার। সত্যি বলতে আমি সন্তুষ্ট ও কৃতজ্ঞ। বিশেষ করে আমাদের সমর্থন দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ জানাই নিউজিল্যান্ড ক্রিকেটের চেয়ারম্যান মার্টিন স্নেডেন ও তার বোর্ডকে।’

দুবাইতে দুই বোর্ডের আলোচনা শেষে পাকিস্তান সফর নিয়ে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেটের প্রধান নির্বাহী ডেভিড হোয়াইট বলেন, ‘এতে করে দুই বোর্ডের সম্পর্ক আরও মজবুত হবে।’

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর