,

safe_image

কিশোরগঞ্জের হাওরে প্রেসিডেন্ট রিসোর্ট উদ্বোধন, হাওরে পর্যটনের নতুন দিগন্ত

হাওর বার্তা ডেস্কঃ কিশোরগঞ্জের হাওরে প্রেসিডেন্ট রিসোর্ট উদ্বোধন করা হয়েছে।  গতকাল শুক্রবার বিকালে মিঠামইন উপজেলার ঘাগড়া ইউনিয়নের হোসেনপুরে তিন তারকা মানের  অভিজাত রিসোর্টটি উদ্বোধন করেন কিশোরগঞ্জ–৪ (ইটনা মিঠামইন অষ্টগ্রাম) আসনের সংসদ সদস্য রাষ্ট্রপতিপুত্র রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক।

প্রায় ৩০ একর জমিতে রিসোর্টটি গড়ে তোলা হয়েছে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের নিজ এলাকায়। আর সে কারণেই এর নামকরণ করা হয়েছে প্রেসিডেন্ট রিসোর্ট। মিঠামইন জিরো পয়েন্ট থেকে তিন কিলোমিটার দূরে ঘাগড়া ইউনিয়নের হোসেনপুরে এর অবস্থান। মোট ১০টি ডুপ্লেক্স কটেজ রয়েছে রিসোর্টটিতে। সেখানে রয়েছে একটি বিশাল পুকুর। এর চারদিক ঘিরেই গড়ে তোলা হয়েছে রিসোর্টটি। পুকুরের উত্তর পাশে রেস্টুরেন্ট আর দক্ষিণ পাশে গড়ে তোলা হয়েছে কটেজগুলো। এর চারদিকে লাগানো হয়েছে হাজারো গাছপালা। বর্ষা মৌসুমে যাতায়াতের মাধ্যম ট্রলার ও স্পিডবোট। আর শুকনো মৌসুমে মোটরসাইকেল বা গাড়িযোগে যাওয়া যাবে।

সম্প্রতি হাওরের তিন উপজেলাতে (ইটনা–মিঠামইন–অষ্টগ্রাম) সারাবছর চলাচলের একটি আভুরা সড়ক নির্মিত হয়। এ সড়কটি ঘিরে সারাদেশের ভ্রমণপিপাসুদের দৃষ্টি পড়ে হাওরে। বাড়তে থাকে পর্যটকের ভিড়। প্রতিদিন এই সড়কটিতে ঢল নামে পর্যটকদের। কিন্তু পর্যটকদের থাকা–খাওয়ার জন্য ভাল মানের কোন রিসোর্ট না থাকায় দিন এসে দিন ফিরে যান অনেকে। মিঠামইন উপজেলার ঘাগড়া ইউনিয়নের হোসেনপুরে ব্যক্তিগত উদ্যোগে অভিজাত রিসোর্টটি গড়ে তুলেন চিকিৎসক এবিএম শাহরিয়ার। এর ফলে আবাসিক সমস্যার অনেকাংশে সমাধান হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

রিসোর্টে সবচেয়ে কম টাকার ডিলাক্স স্যুটের ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে ৮ হাজার টাকা। ভিআইপি স্যুটের ১২ হাজার টাকা, ভিভিআইপি স্যুটের ভাড়া ২০ হাজার টাকা, আর প্রেসিডেন্সিয়াল স্যুটের ভাড়া ৪০ হাজার টাকা। ডিলাক্স স্যুটে রয়েছে ডাইনিংসহ দুটি কক্ষ। আর ভিআইপিতে দুটি কক্ষ। ভিভিআইপিতে তিনটি কক্ষ, আর প্রেসিডেন্সিয়াল স্যুটে রয়েছে ছয়টি কক্ষ। পুরো প্যাকেজের সঙ্গে শুধু সকালের নাশতা দেয়া হবে কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে।

রিসোর্টটি নির্মাণ কাজ আরো আগেই শেষ হলেও করোনা পরিস্থিতির জন্য উদ্বোধনের অপেক্ষায় ছিল। তবে উদ্বোধন হওয়ার আগেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রিসোর্টের ছবি এবং ভিডিও ছড়িয়ে পড়লে অনেকেই এসে ঘুরে যান সেখান থেকে। কেউ তুলেছেন ছবি, কেউবা করেছেন লাইভ। এরই মাঝে অনেক ইউটিউবারও এসে ব্লক করেছেন রিসোর্টিতে। যার ফলে উদ্বোধনের আগেই  এ রিসোর্টটিতে এসে থাকার জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন অনেকেই। বর্তমানে হাওরের অলওয়েদার সড়কটিতে যারা ঘুরতে আসেন তাদের অধিকাংশই নৌকা নিয়ে যাচ্ছেন বিস্তীর্ণ জলরাশির মাঝখানে গড়ে উঠা এ রিসোর্টিতে। তবে উদ্বোধনের পূর্বেই রিসোর্টিতে বুকিং দিয়ে রেখেছেন অনেকেই। কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, আগামী ১৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সেখানে ফাঁকা নেই বুকিং।আর শুক্রবার উদ্বোধন উপলক্ষে ঢাকা থেকে হেলিকপ্টার যোগে রিসোর্টে উপস্থিত হন চলচ্চিত্র জগতের বেশ কয়েকজন অভিনেতা এবং খলনায়ক। এ খবরে সড়কে ঘোরাঘুরিতে থাকা পর্যটক এবং স্থানীয়দের ভিড় বাড়ে সেখানে।

উদ্বোধনকালে রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক এমপি তার বক্তব্যে বলেন, প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের অফুরন্ত ভাণ্ডার হাওর। পরিকল্পিতভাবে হাওরকে ব্যবহার করতে পারলে কক্সবাজারের মত এখানেও পর্যটনের নতুন দিগন্তের সূচনা হবে। মানুষের কর্মসংস্থান হবে, আয় বাড়বে। হাওরের সৌন্দর্য টিকিয়ে রাখতে যত্রতত্র প্লাস্টিকের বোতল বা অন্যান্য ময়লা ফেলার ক্ষেত্রে পর্যটক এবং স্থানীয়দের সচেতন থাকার আহবান জানান এমপি তৌফিক। পর্যটকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, বর্ষা মৌসুমে আপনারা যেখানে বিস্তীর্ণ জলরাশি দেখছেন, গ্রীষ্মকালে এখানে থাকে সবুজ প্রকৃতি। এগুলো মূলত বোরো ধানের জমি। আর এই ময়লাগুলো এই জমির জন্য ক্ষতিকর। সবার মাঝে সচেতনতা না থাকলে হাওর হবে ময়লার ভাগাড়। এজন্যে তিনি সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

উদ্বোধনকালে উপস্থিত ছিলেন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র জাহাঙ্গীর আলম, কিশোরগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট জিল্লুর রহমান, ডিবির যুগ্ম কমিশনার হারুনুর রশিদ, কিশোরগঞ্জের পুলিশ সুপার মাশরুকুর রহমান খালেদ বিপিএম (বার), সংসদ সদস্য রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিকের স্ত্রী এডভোকেট শামসুন্নাহার নেলী, অভিনেতা মনোয়ার হোসেন ডিপজল, মিশা সওদাগর, জায়েদ খান, রুবেলসহ স্থানীয় বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর