,

2

প্রাথমিক শিক্ষকের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বে হাওর: মিঠামইনের মতিউর স্যার সাধারণ সম্পাদক

রফিকুল ইসলামঃ বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির একাদশ কেন্দ্রীয় কাউন্সিল সম্পন্ন হয়েছে। এতে বাংলাদেশ স্কাউটসের কিশোরগঞ্জ জেলা শাখার সহকারী কমিশনার (সংগঠন), জেলার মিঠামইন উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও মিঠামইন আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালের প্রধান শিক্ষক মো. মতিউর রহমান সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন।
বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) রাজধানী ঢাকার ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিশন মিলনায়তনে বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির একাদশ কেন্দ্রীয় কাউন্সিল ২০২১ অনুষ্ঠিত হয়।
বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মো. আতিকুর রহমান আতিকের সভাপতিত্বে কাউন্সিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ এমপি।
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সদস্য পারভীন জামান কল্পনার সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার মো. আবদুস সবুর, দপ্তর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়াসহ সারা দেশ থেকে আসা বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সদস্যবৃন্দ।
কাউন্সিলে আসা অতিথিরা বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সকল শিক্ষকদের বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গঠনে সহায়তার লক্ষে প্রকৃত শিক্ষা শিক্ষার্থীদের মাঝে ছড়িয়ে দেয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেন, বঙ্গবন্ধুর শিক্ষা ভাবনা তাঁর অন্যতম রাজনৈতিক দর্শনের ভিত্তিভূমি।
অতিথি বক্তারা আরও বলেন, শিক্ষকদের প্রতি বঙ্গবন্ধুর যে অকৃত্রিম ভালোবাসা ছিল, তা নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরতে হবে।
কাউন্সিলে নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালন করেন বাংলাদেশ প্রাথমিক সমিতির ঢাকা বিভাগীয় সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম।
তিনি ৬টি সম্পাদকীয় পদ বাদে সভাপতি ও ৬টি সম্পাদকীয়পদসহ ২৫১ সদস্যবিশিষ্ট নবনির্বাচিত কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষণা করেন।
নবনির্বাচিত সভাপতি হলেন মানিকগঞ্জের শিবালয়ের মো. আতিকুর রহমান আতিক, নির্বাহী সভাপতি নেত্রকোনার শিপ্রা পাল, সিনিয়র সহ-সভাপতি গোপালগঞ্জের আসমা আক্তার, সাধারণ সম্পাদক কিশোরগঞ্জের মিঠামইনের মো. মতিউর রহমান, অর্থ সম্পাদক কুমিল্লার চান্দিনার শাহিদা আক্তার ও সাংগঠনিক সম্পাদক ময়মনসিংহের মুহা. রানা আসিফ।
নবনির্বাচিত সভাপতি মো. আতিকুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক মো. মতিউর রহমান কাউন্সিল অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখােন।
কাউন্সিলরদের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানিয়ে তাদের বক্তব্যে ‘বঙ্গবন্ধুর কাছে প্রাথমিক শিক্ষক সমাজ ঋণী’ উল্লেখ করে বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে যেমন স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশ অর্জিত হতো না; তেমনি প্রাথমিক শিক্ষাও জাতীয়করণ হতো না।
তারা আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুর পথ অনুসরণ করে বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১৩ সালে ২৬ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয় সরকারিকরণ করেন।
কাউন্সিলে উপস্থিত অতিথিদের মাধ্যমে প্রাথমিক শিক্ষকদের বেতনবৈষম্যসহ সকল সমস্যা নিরসনকল্পে মানবতারমাতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সদয়দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তারা।
এদিকে কিশোরগঞ্জ জেলা ও উপজেলা শাখার শিক্ষক নেতৃবৃন্দ নবনির্বাচিত কেন্দ্রীয় কমিটিকে বাসন্তী শুভেচ্ছা ও ফুলেল অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, এ-ই প্রথম বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ পেশাজীবী সংগঠনে হাওরের কোনো শিক্ষক শীর্ষ নেতৃত্বে আসল।
উল্লেখ্য, বিশেষ কারণবশত বিশেষ অতিথি হিসেবে জাতীয় শিক্ষা পদকপ্রাপ্ত হাওরের বাতিঘর খ্যাত অধ্যক্ষ বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আবদুল হক নূরু উপস্থিত থাকতে পারেননি বলে একাদশ জাতীয় কাউন্সিল প্রস্তুতি কমিটি সূত্র জানায়।
Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর