,

বৈধপথে লিবিয়ায় শ্রমবাজার বন্ধ হয়নি

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, বৈধপথে লিবিয়ায় বাংলাদেশের শ্রমবাজার বন্ধ হয়নি।
রাজধানীর ইস্কাটনে প্রবাসী কল্যাণ ভবনে রবিবার দুপুরে নিজকক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এমন মন্তব্য করেন তিনি। এর আগে, লিবিয়ায় বাংলাদেশী শ্রমবাজার বন্ধ প্রসঙ্গে দেশটির সরকারের মুখপাত্রের বরাত দিয়ে সংবাদ মাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়।
লিবিয়া সরকারের মুখপাত্র হাতেম উরাইবি শনিবার বলেন,‘বাংলাদেশীদের অনেকেই লিবিয়া থেকে অবৈধভাবে ইউরোপে যাওয়ার চেষ্টা করে। তারা (বাংলাদেশী) লিবিয়ার ফার্মে কাজ করতে আসে। পরে অবৈধভাবে ইউরোপে যায়। সরকারের অবৈধ অভিবাসীবিরোধী অভিযানের অংশ হিসেবে বাংলাদেশ থেকে লোক নেওয়ার বিষয়ে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।’
প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী বলেন, ‘যারা বৈধপথে লিবিয়ায় যাচ্ছে তাদের যাওয়া বন্ধ হয়নি। বরং যারা অবৈধপথে বিএমইটির (জনশক্তি রফতানি ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো) ছাড়পত্র ছাড়া যাচ্ছে তাদের লিবিয়া সরকার ঢুকতে দেবে না। সুতরাং লিবিয়ার শ্রমবাজার বন্ধ হয়নি। দুই সরকারের (বাংলাদেশ-লিবিয়া) মধ্যে জনশক্তি রপ্তানি ও আমদানি চালু আছে।’
মানবপাচার প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘মৃত্যুদণ্ডের বিধান রেখে আমরা জনগণের জন্য মানবপাচার আইন করেছি। এ আইনের বাস্তবায়ন হলে খুব ভাল হতো। কিন্তু এখনো এ ব্যাপারে জনসচেতনতা তৈরি হয়নি। জনগণ এগিয়ে আসে না। তারা নিজেরা মামলা করতে আসে না।’
তিনি বলেন, ‘আপনাদের মাধ্যমে (গণমাধ্যম) জনগণ সচেতন হবে। আশা করি তারা এগিয়ে আসবে, মানবপাচার আইনে মামলা করবে। এরপর পাচারকারীদের বিচার হবে, তারা শাস্তি পাবে।’
এসময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মন্ত্রণালয়ের সচিব খন্দকার ইফতেখার হায়দার, বিএমইটির ডিজি বেগম শামসুন নাহার।
Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর