ঢাকা ০৩:০০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ছিনতাইকারী-চাঁদাবাজ গ্রেফতার অভিযান জোরদারের নির্দেশ

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ০৪:৩০:০৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৮ জুন ২০১৫
  • ৩৭৫ বার

ঢাকা মহানগরে ছিনতাইকারী, চাঁদাবাজ ও অজ্ঞান পার্টির সদস্যদের গ্রেফতার অভিযান জোরদার করার জন্য ডিএমপিকে নির্দেশ দিয়েছেন পুলিশের আইজিপি এ কে এম শহীদুল হক।

পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের সম্মেলনকক্ষে রবিবার বিকেলে রোজা ও ঈদের আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত সভায় পুলিশ মহাপরিদর্শক ঢাকা মহানগর পুলিশকে এ নির্দেশ দেন।

শহীদুল হক বলেন, ‘রমজান ও ঈদকে ঘিরে আর্থিক লেনদেন বেশি হয়। ফলে প্রতি বছর এ সময় অপরাধীরা বিশেষ করে ছিনতাইকারী, মলম পার্টি, অজ্ঞান পার্টি ও চাঁদাবাজদের উৎপাত বেড়ে যায়।’

পুলিশ সদস্যদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘মানুষের উৎসব, আনন্দ নিশ্চিত করতে আমাদের বাড়তি শ্রম দিতে হবে। মানুষের আনন্দ নিশ্চিত করাই আমাদের আনন্দ। তাই রাতদিন অফিসার ও ফোর্সদের মাঠে সক্রিয় থাকতে হবে। সিনিয়র অফিসারদেরও মনিটরিং বাড়াতে হবে।’

ডিএমপি কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, ‘ডিবি (গোয়েন্দা পুলিশ) উল্লেখযোগ্যসংখ্যক ছিনতাইকারী, মলম পার্টি, চাঁদাবাজ ও অজ্ঞান পার্টির সদস্যকে গ্রেফতার করেছে। ফলে এবার অজ্ঞান পার্টির দৌরাত্ম্য নেই। অন্যান্য অপরাধ নিয়ন্ত্রণে ইউনিট তৎপর রয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘বিশাল এ মহানগরে দুই কোটি মানুষের মধ্যে কিছু অপরাধ হয়ে থাকে। সেগুলো উদ্ঘাটনেও ডিএমপির সাফল্য রয়েছে।’

সভায় ডেপুটি ইন্সপেক্টর জেনারেল (ডিআইজি-অপারেশনস) চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন, ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার মারুফ হাসান, এডিশনাল ডিআইজি (স্পেশাল ক্রাইম) মো. জহিরুল ইসলাম ভূঁইয়া, ডিএমপির গোয়েন্দা বিভাগের যুগ্ম-কমিশনার মনিরুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

জনপ্রিয় সংবাদ

ছিনতাইকারী-চাঁদাবাজ গ্রেফতার অভিযান জোরদারের নির্দেশ

আপডেট টাইম : ০৪:৩০:০৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৮ জুন ২০১৫

ঢাকা মহানগরে ছিনতাইকারী, চাঁদাবাজ ও অজ্ঞান পার্টির সদস্যদের গ্রেফতার অভিযান জোরদার করার জন্য ডিএমপিকে নির্দেশ দিয়েছেন পুলিশের আইজিপি এ কে এম শহীদুল হক।

পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের সম্মেলনকক্ষে রবিবার বিকেলে রোজা ও ঈদের আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত সভায় পুলিশ মহাপরিদর্শক ঢাকা মহানগর পুলিশকে এ নির্দেশ দেন।

শহীদুল হক বলেন, ‘রমজান ও ঈদকে ঘিরে আর্থিক লেনদেন বেশি হয়। ফলে প্রতি বছর এ সময় অপরাধীরা বিশেষ করে ছিনতাইকারী, মলম পার্টি, অজ্ঞান পার্টি ও চাঁদাবাজদের উৎপাত বেড়ে যায়।’

পুলিশ সদস্যদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘মানুষের উৎসব, আনন্দ নিশ্চিত করতে আমাদের বাড়তি শ্রম দিতে হবে। মানুষের আনন্দ নিশ্চিত করাই আমাদের আনন্দ। তাই রাতদিন অফিসার ও ফোর্সদের মাঠে সক্রিয় থাকতে হবে। সিনিয়র অফিসারদেরও মনিটরিং বাড়াতে হবে।’

ডিএমপি কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, ‘ডিবি (গোয়েন্দা পুলিশ) উল্লেখযোগ্যসংখ্যক ছিনতাইকারী, মলম পার্টি, চাঁদাবাজ ও অজ্ঞান পার্টির সদস্যকে গ্রেফতার করেছে। ফলে এবার অজ্ঞান পার্টির দৌরাত্ম্য নেই। অন্যান্য অপরাধ নিয়ন্ত্রণে ইউনিট তৎপর রয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘বিশাল এ মহানগরে দুই কোটি মানুষের মধ্যে কিছু অপরাধ হয়ে থাকে। সেগুলো উদ্ঘাটনেও ডিএমপির সাফল্য রয়েছে।’

সভায় ডেপুটি ইন্সপেক্টর জেনারেল (ডিআইজি-অপারেশনস) চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন, ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার মারুফ হাসান, এডিশনাল ডিআইজি (স্পেশাল ক্রাইম) মো. জহিরুল ইসলাম ভূঁইয়া, ডিএমপির গোয়েন্দা বিভাগের যুগ্ম-কমিশনার মনিরুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।