স্পিকার, প্রধানমন্ত্রী পদে প্রার্থী দিতে চায় পিটিআই

সদ্য অনুষ্ঠিত নির্বাচনে মারাত্মক অনিয়মের অভিযোগ ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহরিকে ইনসাফের (পিটিআই)। তাদের দাবি অসৎ উদ্দেশে তাদের প্রার্থীদের পরাজিত করে দেশকে রাজনৈতিক বিশৃঙ্খলা ও অর্থনৈতিক অস্থিতিশীলতায় নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে।

তা সত্ত্বেও দলটি সোমবার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা স্পিকার, প্রধানমন্ত্রীর পদ এবং অন্য পদগুলোতে প্রার্থী দেবে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন ডন। এর পাশাপাশি কেন্দ্রে, পাঞ্জাব ও খাইবার পখতুনখাওয়া প্রদেশে সরকার গঠনের কৌশল নির্ধারণের জন্য একটি বিশেষ কমিটি গঠন করেছে তারা। দলটির এক মুখপাত্র বলেছেন, দেশ বর্তমান ভয়াবহ এক সঙ্কটে

এ থেকে উত্তরণের জন্য গণতান্ত্রিক এবং সাংবিধানিকভাবে একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও স্বচ্ছ নির্বাচন অপরিহার্যই ছিল এমন না। কিন্তু নির্বাচন কমিশন তার অযোগ্যতা এবং অসৎ এজেন্ডার মাধ্যমে সেই সুযোগকে নষ্ট করেছে। এ ইস্যুতে প্রেসিডেন্ট ড. আরিফ আলভির সঙ্গে সাক্ষাত করেছেন পিটিআইয়ের একটি প্রতিনিধি দল। তারা নির্বাচনে জালিয়াতির প্রসঙ্গ তার সামনে তুলে ধরেছেন।

এক বিবৃতিতে পিটিআইয়ের মুখপাত্র বলেছেন, পাকিস্তানের জনগণ তাদের পরিষ্কার রায় দিয়ে দিয়েছে। তারা জোরালোভাবে তাদের কথা বলেছে ভোটের শক্তি দিয়ে। কিন্তু দেশের নির্বাচনী প্রক্রিয়ার বিশ্বাসযোগ্যতা এবং মর্যাদা ধ্বংস করে দিয়েছেন রিটার্নিং কর্মকর্তারা। তিনি আরও বলেন, নির্বাচনকে সন্দেহের চোখে দেখছে পুরো বিশ্ব। কারণ নির্বাচন কমিশন দৃশ্যত পক্ষপাতী ছিল। নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় হস্তক্ষেপ করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর