ঢাকা ০৫:৫৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রাথমিক শিক্ষায় ৫০০ কোটি টাকা দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক

  • Reporter Name
  • আপডেট টাইম : ০৩:২৮:২০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১ জুলাই ২০২২
  • ১১৯ বার

হাওর বার্তা ডেস্কঃ বাংলাদেশের প্রাথমিক ও গণশিক্ষার উন্নয়নে পাঁচ কোটি ৩৫ লাখ ২৫ হাজার ডলার অনুদান দেবে বিশ্বব্যাংক। প্রতি ডলার ৯৩ টাকা ৫০ পয়সা হিসাবে টাকার অঙ্কে যা ৫০০ কোটি ৪৫ লাখ ৮৭ হাজার টাকা। গ্লোবাল পার্টনারশিপ ফর এডুকেশন (জিপিই) ট্রাস্ট ফান্ড থেকে এ অনুদান দেওয়া হবে। বাংলাদেশ ও বিশ্বব্যাংকের মধ্যে এসংক্রান্ত একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের (ইআরডি) পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়। ইআরডি সচিব ফাতিমা ইয়াসমিন ও বিশ্বব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর মার্সি মিয়াং এ চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।

 বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, চলতি বছরের ৩০ মে বিশ্বব্যাংক অতিরিক্ত অনুদান সহায়তা অনুমোদন করে। এরপরই গত ২১ জুন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা উন্নয়ন প্রকল্প-৪ কর্মসূচির আরডিপিপি পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ে অনুমোদন পায়। ২০১৮ সালে শুরু হওয়া এ কর্মসূচি চলবে ২০২৩ সাল পর্যন্ত। কর্মসূচি বাস্তবায়ন করবে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীন প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর। এ প্রকল্প বাস্তবায়নে সরকারি তহবিল থেকে জোগান দেওয়া হবে ২৫ হাজার ৫৯১ কোটি ৫৭ লাখ টাকা। বাকি ১২ হাজার ৮০৫ কোটি ৫৯ লাখ টাকা আসবে বৈদেশিক সহায়তা হিসেবে।

এ ক্ষেত্রে বিশ্বব্যাংক, এডিবি, জাইকা, ইইউ, ডিএফআইডি, অস্ট্রেলিয়ান এইড, কানাডীয় সিডা, সুইডিশ সিডা, ইউনিসেফ ও ইউএসএইড প্রকল্পে অর্থায়ন করবে। এরই ধারাবাহিকতায় অর্থায়ন করেছে বিশ্বব্যাংক। শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ, শ্রেণিকক্ষ নির্মাণ, সব শিশুর শিক্ষা নিশ্চিতকরণ, আইসিটি শিক্ষার মানোন্নয়নের মতো বিষয়গুলো পিইডিপি-৪-এ স্থান পেয়েছে।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Haor Barta24

প্রাথমিক শিক্ষায় ৫০০ কোটি টাকা দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক

আপডেট টাইম : ০৩:২৮:২০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১ জুলাই ২০২২

হাওর বার্তা ডেস্কঃ বাংলাদেশের প্রাথমিক ও গণশিক্ষার উন্নয়নে পাঁচ কোটি ৩৫ লাখ ২৫ হাজার ডলার অনুদান দেবে বিশ্বব্যাংক। প্রতি ডলার ৯৩ টাকা ৫০ পয়সা হিসাবে টাকার অঙ্কে যা ৫০০ কোটি ৪৫ লাখ ৮৭ হাজার টাকা। গ্লোবাল পার্টনারশিপ ফর এডুকেশন (জিপিই) ট্রাস্ট ফান্ড থেকে এ অনুদান দেওয়া হবে। বাংলাদেশ ও বিশ্বব্যাংকের মধ্যে এসংক্রান্ত একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের (ইআরডি) পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়। ইআরডি সচিব ফাতিমা ইয়াসমিন ও বিশ্বব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর মার্সি মিয়াং এ চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।

 বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, চলতি বছরের ৩০ মে বিশ্বব্যাংক অতিরিক্ত অনুদান সহায়তা অনুমোদন করে। এরপরই গত ২১ জুন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা উন্নয়ন প্রকল্প-৪ কর্মসূচির আরডিপিপি পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ে অনুমোদন পায়। ২০১৮ সালে শুরু হওয়া এ কর্মসূচি চলবে ২০২৩ সাল পর্যন্ত। কর্মসূচি বাস্তবায়ন করবে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীন প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর। এ প্রকল্প বাস্তবায়নে সরকারি তহবিল থেকে জোগান দেওয়া হবে ২৫ হাজার ৫৯১ কোটি ৫৭ লাখ টাকা। বাকি ১২ হাজার ৮০৫ কোটি ৫৯ লাখ টাকা আসবে বৈদেশিক সহায়তা হিসেবে।

এ ক্ষেত্রে বিশ্বব্যাংক, এডিবি, জাইকা, ইইউ, ডিএফআইডি, অস্ট্রেলিয়ান এইড, কানাডীয় সিডা, সুইডিশ সিডা, ইউনিসেফ ও ইউএসএইড প্রকল্পে অর্থায়ন করবে। এরই ধারাবাহিকতায় অর্থায়ন করেছে বিশ্বব্যাংক। শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ, শ্রেণিকক্ষ নির্মাণ, সব শিশুর শিক্ষা নিশ্চিতকরণ, আইসিটি শিক্ষার মানোন্নয়নের মতো বিষয়গুলো পিইডিপি-৪-এ স্থান পেয়েছে।