,

1647484444-656

স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়া করায় দোলোয়ারকে কুপিয়ে হত্যা

হাওর বার্তা ডেস্কঃ রংপুরের পীরগাছা উপজেলায় বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে ব্যবসায়ী দেলোয়ার হোসেনকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার প্রধান আসামি ফারুক মিয়া আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

 জবানবন্দিতে ফারুক স্বীকার করেছেন- তার স্ত্রীর সঙ্গে দেলোয়ারের পরকীয়া সম্পর্ক ছিল। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে তাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে।

মঙ্গলবার রাতে রংপুর জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মো. আবু হেনা সিদ্দিকীর কাছে ফারুক মিয়া স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

বুধবার বিকেলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রংপুর জেলার সহকারী পুলিশ সুপার (সি সার্কেল) আশরাফুল আলম পলাশ। তিনি বলেন, আদালত সূত্রে জানতে পেরেছি ফারুকের স্ত্রীর সঙ্গে দেলোয়ারের পরকীয়ার কারণে এই হত্যাকাণ্ড ঘটেছে। গত রমজান মাসে পরকীয়ার কারণে ফারুক মিয়ার সঙ্গে তার স্ত্রীর বিচ্ছেদ ঘটে। এতে ৩ সন্তান নিয়ে ফারুক মিয়ার বিপাকে পড়ে। এতে তার মাঝে ক্ষোভ দেখা দেয়। ক্ষোভের কারণে এই হত্যাকাণ্ড ঘটেছে।

এর আগে পুলিশ মঙ্গলবার সকালে রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলার জায়গিরহাট এলাকা থেকে ফারুক মিয়াকে গ্রেফতার করে। প্রাথমিক স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত একটি চাকু পুকুর থেকে উদ্ধার করা হয়েছে।

শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে দেলোয়ারকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে হত্যা করা হয়। নিহতের স্ত্রী আনোয়ারা বেগম বাদী হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করেন।

হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ফারুকের ছোট ভাই সবুজ মিয়া (৩৫), শফিকুল ইসলাম (৪০) ও রনজু মিয়া (৩০) নামে ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়। হত্যার ঘটনায় এ পর্যন্ত ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর