,

1653566629.tt32

বন্দরে ১৯ টন ‘ঘনচিনি’ আটক করলো কাস্টম হাউস

হাওর বার্তা ডেস্কঃ রাজধানী ঢাকার বংশালের ডিএসএস এন্টারপ্রাইজের সোডা অ্যাশ লাইট ঘোষণায় বন্দরে আসা একটি চালানে ১৯ টন আমদানি নিষিদ্ধ ঘনচিনি (সোডিয়াম সাইক্লামেট) আটক করেছে চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস। সাধারণ চিনির তুলনায় ৫০ গুণ বেশি মিষ্টি ঘনচিনি, যা ক্যানসার রোগ সৃষ্টির অন্যতম উপাদান।

 কাস্টম হাউসের যুগ্ম কমিশনার সালাহ উদ্দিন রিজভী  ঘনচিনির চালান আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সূত্র জানায়, গত ১৮ মে চীনের জিনদাও বন্দর থেকে এইচআর হেরা জাহাজে ওই চালানের কনটেইনারটি চট্টগ্রাম বন্দরে আসলে কাস্টম হাউস চট্টগ্রামের পোর্ট কনট্রোল ইউনিট (পিসিইউ) রিস্ক ম্যানেজমেন্ট অ্যানালাইসিসের আওতায় বিল অব লোডিংটি এনবিআরের অ্যাসাইকুডা ওয়ার্ল্ড সিস্টেমে ব্লক করা হয়।

আমদানিকারক চালানটি খালাসের প্রক্রিয়া শুরু না করায় কাস্টম হাউসের অডিট ইনভেস্টিগেশন অ্যান্ড রিসার্চ (এআইআর) টিমের সহায়তায় বুধবার (২৫ মে) শতভাগ কায়িক পরীক্ষার লক্ষ্যে কনটেইনারটি নেমসন কনটেইনার ডিপোতে ফোর্স  কিপ ডাউন করা হয়। এরপর কায়িক পরীক্ষাকালে পণ্যের বস্তার ওপর আমদানিকারকের নাম ও অন্যান্য তথ্য সম্বলিত  অপসারণযোগ্য স্টিকার পাওয়া যায়। বস্তার ভেতরে লুকানো আমদানি নিষিদ্ধ ঘনচিনি পাওয়া যায়। বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানিয়ে মিথ্যা ঘোষণায় আমদানি করা ১৯ টন ঘনচিনি ও ১ টন সোডা অ্যাশ আটক করা হয়।

কাস্টম হাউসের কমিশনার মো. ফখরুল আলম এ ঘটনায় দোষী ব্যক্তিদের চিহ্নিত করে কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা নিতে নিদের্শনা দিয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর