,

ঘরের মেঝেতে মিললো এজেন্ট ব্যাংক মালিকের রক্তাক্ত মরদেহ

হাওর বার্তা ডেস্কঃ নীলফামারীর ডিমলায় নিজের ঘর থেকে আনোয়ারুল ইসলাম চৌধুরী নামের এক ব্যক্তির রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

রোববার (৯ অক্টোবর) বিকেলে উপজেলার সদর ইউনিয়নের বাবুর হাট এলাকার নিজ বাড়ি থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

তিনি জেলার জলঢাকা উপজেলার খারিজা গোলনা এলাকার আব্দুল হাইয়ের ছেলে। তিনি ডিমলা ডাচ্ বাংলা ব্যাংকের এজেন্ট ছিলেন। ১৮ বছর ধরে বাবুর হাট এলাকায় বসবাস করতেন তিনি।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, ছেলে-মেয়েকে নিয়ে শনিবার সকালে জলঢাকায় গ্রামের বাড়িতে যান স্ত্রী সুখি বেগম। সকালে বাসা সংলগ্ন মোটরসাইকেল মেকানিক পল্লব দোকান খুলে বাসার ভিতরে গেলে আনোয়রুল ইসলামের ঘরের দরজা খোলা দেখতে পান। পরে ভেতরে ঢুকলে মেঝেতে আনোয়ারুল ইসলামের রক্তাক্ত মরদেহ দেখে স্থানীয়দের ডাকেন। স্থানীয়রা থানায় খবর দিলে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে।

ডিমলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) লাইছুর রহমান, তার মাথায় গুরুতর আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এ ঘটনায় পরিবারের লোকজন মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে। সিআইডি ও পিবিআই বিষয়টি তদন্ত করছে বলেও জানান তিনি।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর