,

পদ বাণিজ্য নিয়ে যা বললেন ছাত্রলীগ সভাপতি

হাওর বার্তা ডেস্কঃ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় বলেছেন, ৫০ লাখ নেতাকর্মীর সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। সেই সংগঠনের নেতাকর্মীরা নিঃস্বার্থ কর্মী হিসেবে কাজ করে যাচ্ছে। কিন্তু দেশবিরোধীদের কাছ থেকে শুনতে হয়, ছাত্রলীগ নাকি পদ বাণিজ্য করে। এ ধরনের যারা মিথ্যা অপবাদ দেয়, তাদের আমরা বলতে চাই। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কখনোই পদ বাণিজ্য করে না। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ জাতির পিতার আদর্শ বুকে ধারণ করে যারা তাদের মধ্য থেকেই নেতৃত্ব আনে।

আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৬তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার টেপিরবাড়ির ছাতির বাজারে জেলা ছাত্রলীগ আয়োজিত ছাত্র সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

গাজীপুর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সুলতান মো. সিরাজুল ইসলামের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক নাছির মোড়লের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী ও গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আ ক ম মোজাম্মেল হক।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- গাজীপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য, গাজীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ ইকবাল হোসেন সবুজ। বিশেষ বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয়, সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য।

ছাত্রলীগ সভাপতি জয় বলেন, বঙ্গবন্ধুর নিজ হাতে গড়া ছাত্র সংগঠন এখন পর্যন্ত তার গৌরব, ঐতিহ্য, সংগ্রাম এবং সাফল্যের ধারাবাহিকতা রক্ষা করে এগিয়ে যাচ্ছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বলেছিলেন- বাঙ্গালীর ইতিহাস, ছাত্রলীগের ইতিহাস। সেই ছাত্রলীগ বাংলাদেশের প্রতিটি অর্জনে ভূমিকা রেখেছে, অনেকের রক্তে রঞ্জিত হয়েছে রাজপথ, আমরা তাদের শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করছি। কারণ তাদের সেই রক্তে রঞ্জিত ইতিহাসের কারণে আজকে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ গৌরবের জায়গায়, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ প্রশংসার জায়গায়।

মানবিক ছাত্রলীগ সম্পর্কে তিনি বলেন, করোনা মোকাবেলার সময় এই তৃণমূলের নেতাকর্মীদের কারণে ছাত্রলীগ প্রশংসা কুড়িয়েছে। আজকে কেন্দ্র থেকে তৃণমূল পর্যন্ত প্রত্যেকটি নেতাকর্মীরা জাতির দুর্যোগে, দুর্বিপাকে যারা নিজের জীবনের কথা চিন্তা না করে এদেশের মানুষের জন্য কাজ করেছেন, সেই ছাত্রনেতা সেই নেতাকর্মীদের কৃতজ্ঞতার সাথে বারবার স্মরণ করবো। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ যতদিন থাকবে, ততদিন এদেশের মানুষ ছাত্রলীগকে স্মরণ করবে।

বিতর্কিত কর্মকাণ্ডে বিষয়ে ছাত্রলীগ সভাপতি বলেন, আজকে ছাত্রলীগের এত অর্জন এ অর্জনের পাশেও আমরা দেখেছি কিছু কর্মকাণ্ডের কারণে আমাদের বারবার বিতর্কিত হতে হয়। আমাদের ব্যক্তি স্বার্থের কারণে আমরা বারবার বাংলাদেশ ছাত্রলীগকে বিতর্কিত করার যে চেষ্টা করি, সে চেষ্টা কখনো সফল হবে না। আজকে ছাত্রলীগকে যারা ব্যক্তি-স্বার্থে ব্যবহার করতে চায় যারা ছাত্রলীগকে তারা জাতির পিতার আদর্শকে ব্যক্তি স্বার্থে ব্যবহার করতে চায়।

তিনি বলেন, আজকে ছাত্রলীগের এই কর্মী বাহিনী এগিয়ে যাবে, আজকে জননেত্রী, দেশরত্ন শেখ হাসিনা যখন জাতিসংঘের প্রোগ্রামে উপস্থিত সেই সময় আমরা দেখেছি ছাত্রলীগকে নিয়ে একটি পক্ষ ষড়যন্ত্র করছে এই ষড়যন্ত্রের কারণে আপনারা তৃণমূলের নেতাকর্মীরা দ্বিধাগ্রস্ত হচ্ছেন। আপনাদের উদ্দেশ্যে বলতে চাই, ছাত্রলীগের গুটিকয়েক নেতা আগেও ছিল, বর্তমানেও আছে যারা সংগঠনকে বিতর্কিত করতে চায় তাদের ব্যক্তিগত স্বার্থে। সেই ব্যক্তিগত এজেন্ডা বাস্তবায়নের সুযোগ ছাত্রলীগে হবে না।

ছাত্রদলের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের জন্য বাংলাদেশ ছাত্রলীগ প্রতিষ্ঠা করেছিল জাতির পিতা কিন্তু অপরপক্ষে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলে এখন পর্যন্ত কোনো গঠনতন্ত্র তৈরি করতে পারেনি, যেই ছাত্র সংগঠনে কোনো ছাত্রত্বের বালাই নেই। যে সংগঠনে এখন পর্যন্ত অছাত্রদের নিয়ে নেতৃত্ব দেয়া হয়, যে সংগঠনে বাবাদের দ্বারা নেতৃত্ব দেয়া হয়; সেই সংগঠনের কেউ যদি কোনো ষড়যন্ত্র করে- ছাত্রলীগ তা মেনে নেবে না।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর