,

নেত্রকোণায় পানিতে ডুবে ৫ জনের মৃত্যু

হাওর বার্তা ডেস্কঃ নেত্রকোণার ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া আকস্মিক প্রবল দমকা হাওয়ার সময় মাছ ধরতে গিয়ে হাওর এলাকার পানিতে ডুবে ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল শুক্রবার রাতে জেলার বিভিন্ন উপজেলায় এ ঘটনা ঘটেছে। এদিকে জেলার পূর্বধলা উপজেলায় পানিতে ডুবে ২ শিশুর মৃত্যু হয়েছে।

হাওরের পানিতে ডুবে নিহতরা হলেন, মদন উপজেলার রফিকুল ইসলাম (৩৬), আটপাড়া উপজেলার দিলোয়ার হোসেন দিলু (৩২) এবং মোহনগঞ্জ উপজেলার রাসেল মিয়া (২৫)।

অপরদিকে, জেলার পূর্বধলা উপজেলায় পৃথক স্থানে পুকুরের পানিতে ডুবে গালিব আয়ান (২) ও আরমান (৩) নামে দুই শিশু মারা গেছে।

দমকা হাওয়ার ঘটনায় কয়েক ঘণ্টা বিদ্যুৎ ছিল না পুরো নেত্রকোণায়। শনিবার দুপুর পর্যন্ত জেলার কোনো কোনো এলাকায় বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক হলেও অনেক এলাকায় এখনও বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রয়েছে। এতে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন সাধারণ মানুষ।

জানা গেছে, মদন উপজেলার মান্দারকাটা হাওরে মাছ ধরতে গিয়ে দমকা হাওয়ার কবলে পড়ে জেলে রফিকুল ইসলাম নিখোঁজ হয়। পরে শনিবার ভোরে হাওর থেকে তার মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। একই সময় আটপাড়া উপজেলার দুওজ ইউনিয়নের কৈলং গ্রামের পাশের গণেশের হাওরের মাছ ধরতে গিয়ে প্রবল বাতাসের তোরে নৌকা থেকে পানিতে ডুবে দিলোয়ার হোসেন দিলু মারা গেছেন।

এদিকে, মোহনগঞ্জ উপজেলার দরুন বানিহারী গ্রামের বজলু মিয়ার ছেলে রাসেল মিয়া স্থানীয় ডিঙ্গাপোতা হাওরের পানিতে পড়ে নিখোঁজ হওয়ার পর শনিবার দুপুরে তার মৃতদেহ উদ্ধার করেছে সংশ্লিষ্টরা।

সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, গতকাল শুক্রবার রাত ১০টার দিকে প্রবল বাতাস বয়ে যায়। এতে মদন, মোহনগঞ্জ ও আটপাড়া উপজেলার হাওরের মাছ শিকারীরা বাতাসের কবলে পড়ে। এ সময় তিনজনের মৃত্যু হয়।

শনিবার দুপুরে জেলার মদন থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ ফেরদৌস আলম, আটপাড়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাফর ইকবাল ও মোহনগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রফিকুল ইসলাম এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

অপরদিকে, পূর্বধলা উপজেলায় পৃথক স্থানে পুকুরের পানিতে ডুবে গালিব আয়ান ও আরমান মারা গেছে। শুক্রবার (৯ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে সন্ধ্যার মধ্যে এ দুই শিশু মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

গালিব আয়ান উপজেলার ধলামূলগাঁও ইউনিয়নের বাশাউড়া গ্রামের শফিকুল ইসলাম ফয়সালের ছেলে এবং আরমান উপজেলার খলিশাউড় ইউনিয়নের চকপাড়া গ্রামের নুরুল হকের ছেলে।

পূর্বধলা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাইফুল ইসলাম এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। ওসি জানান, পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যুর ঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলা রুজু করা হয়েছে।

নিহত দুই শিশুর স্বজনদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে গালিব আয়ান বাড়ির পাশের একটি পুকুরের পানিতে পড়ে মারা যায়।

অপরদিকে সকাল ১০টার দিকে আরমান খেলতে গিয়ে পরিবারের লোকজনের অগোচরে বাড়ির পাশের একটি পুকুরের পানিতে পড়ে যায়। পরে বাড়ির লোকজন খোঁজাখুঁজির পর পুকুর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর