,

এবার লঞ্চভাড়া বাড়ানোর সিদ্ধান্ত

হাওর বার্তা ডেস্কঃ জ্বালানী তেলের মূল্য বৃদ্ধির কারণে সড়কে বাসভাড়া বৃদ্ধির পর এবার লঞ্চভাড়া বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। তবে হার নির্ধারণে ওয়ার্কিং গ্রুপ গঠন করা হয়েছে। কমিটি দু-একদিনের মধ্যে ভাড়া বৃদ্ধির প্রস্তাব করবে। ১০ তারিখের মধ্যে গেজেট প্রকাশ করা হবে।

সোমবার নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। পরে বৈঠকের সভাপতি নৌপরিবহণ সচিব মো. মোস্তফা কামাল এসব তত্য জানান।

নৌপরিবহন সচিব বলেন, মালিকদের প্রস্তাবিত ভাড়ার হার বেশি। এজন্য কমিটি করা হয়েছে। কেউ যেন ক্ষতিগ্রস্ত না হয়, সেজন্য কাজ করবে ওয়ার্কিং গ্রুপ। প্রজ্ঞাপন হওয়ার আগ পর্যন্ত আগের ভাড়াতেই লঞ্চে যাত্রী পরিবহণ করা হবে।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-চলাচল (যাত্রী পরিবহন) সংস্থার পক্ষ থেকে লঞ্চ ভাড়া ১০০ ভাগ বৃদ্ধির প্রস্তাব করা হয়েছে। প্রস্তাবনা নিয়ে মালিক সমিতির প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক হয়।

এর আগে, গত বছরের ৪ নভেম্বর ডিজেল ও কেরোসিনের দাম প্রতি লিটারে ভোক্তা পর্যায়ে ৬৫ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৮০ টাকা পুনর্নির্ধারণ করে সরকার। ৮ নভেম্বর থেকে বাড়ানো হয় লঞ্চভাড়া। ঐ সময় কিলোমিটার প্রতি লঞ্চভাড়া ৬০ পয়সা বাড়ে, যা শতাংশের হিসাবে কম দূরত্বের লঞ্চের ক্ষেত্রে ৩৫ দশমিক ২৯ শতাংশ ও বেশি দূরত্বের ক্ষেত্রে ৪২ শতাংশ বাড়ানো হয়।

তখন প্রথম ১০০ কিলোমিটার দূরত্বের জন্য প্রতি কিলোমিটারে জনপ্রতি ভাড়া ৬০ পয়সা বাড়িয়ে ২ টাকা ৩০ পয়সা এবং প্রথম ১০০ কিলোমিটারের বেশি দূরত্বের জন্য প্রতি কিলোমিটারে জনপ্রতি ভাড়া ৬০ পয়সা বাড়িয়ে ২ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছিল। জনপ্রতি সর্বনিম্ন ভাড়া নির্ধারণ করা হয় ২৫ টাকা।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর