,

55555555

নিখোঁজের ৩ দিন পর পদ্মা নদী থেকে স্কুলছাত্রের লাশ উদ্ধার

হাওর বার্তা ডেস্কঃ রাজশাহীর বাঘায় নিখোঁজের তিন দিন পর পদ্মা নদী থেকে এক স্কুলছাত্রের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টায় কলিগ্রামের পদ্মা নদী থেকে এই লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

জানা যায়, উপজেলার চকছাতারী গ্রামের আবদুর রাজ্জাকের ছেলে রাজিব হোসেন (১৫) বুধবার দুপুরের খাবার খেয়ে বাড়ি থেকে বের হয়। তাকে বিভিন্ন স্থানে খোঁজ করে পাওয়া যায়নি। ওই দিন বোন চায়না খাতুন বাদী হয়ে বাঘা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। এই ডায়েরি করার তিন দিন পর কলিগ্রামের পদ্মা নদী থেকে রাজিবের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

রাজিব হোসেনের পিতা আবদুর রাজ্জাক লেবারের কাজ ও মা আফরোজা বেগম ঢাকায় গার্মেন্টসে চাকরি করেন। রাজিব বাড়িতে নানির কাছে থেকে বাঘা ইসালামি একাডেমি উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণিতে লেখাপাড়া করে।

এ বিষয়ে তার বোন চায়না বেগম বলেন, আমার ছোট ভাই কিছু দিন আগে অ্যান্ড্রয়েড রেডমি ১০ মোবাইল ফোন ব্যবহার করত। এই ফোনের জন্য আমার ভাইকে খুন করে পদ্মা নদীতে ফেলে দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে তার নানি সুরাজান বেগম বলেন, বাড়িতে কেউ থাকে না। আমি মেয়ের বাড়ি থাকি আর নাতি রাজিবকে দেখাশোনা করি। নাতি লেখাপড়াতে ভালো। কিন্তু কোনো কোনো সময়ে ফোন কেনার পর তার বন্ধুদের সঙ্গে এখানে সেখানে বিকাল হলেই ঘুরতে যায়। অন্যদিনের মতো বুধবার দুপুরের খাবার খাওয়ার পর বাড়ি থেকে বের হয়। আর ফিরে আসেনি।

এ বিষয়ে বাঘা থানার ওসি সাজ্জাদ হোসেন বলেন, তার গলায় দড়ি ছিল এবং মুখের মধ্যে দড়ি ঢোকানো অবস্থায় লাশ উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর