,

iPAD1z3f5bafGuOJ54zdvMG9nQ2ocwGSt0ZT0bfm

সড়কে গাছ ফেলে গণডাকাতি

হাওর বার্তা ডেস্কঃ চুয়াডাঙ্গায় সড়কে গাছ ফেলে ঘণ্টাব্যাপী গণডাকাতি চালিয়েছে একদল মুখোশধারী ডাকাত। গরু ব্যবসায়ী, ঠিকাদার ও সাধারণ মানুষকে জিম্মি করে স্বর্ণের গহনাসহ প্রায় ৪০ লাখ টাকা লুটপাট করেছেন তারা।

 সদর উপজেলার গহেরপুর-সড়াবাড়িয়া সড়কের শালিকচরা নামক স্থানে বৃহস্পতিবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পুলিশ কাউকে আটক করতে পারেনি।

স্থানীয় ও ভুক্তভোগীরা জানান, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ১৫-২০ জনের সঙ্গবদ্ধ একদল ডাকাত রাস্তায় গাছ ফেলে ব্যারিকেড দেয়। মুখোশধারী ডাকাতরা দেশীয় অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে হাটফেরত গরু ব্যবসায়ী, ঠিকাদার ও সাধারণ মানুষের কাছ থেকে প্রায় ৩০ লাখ টাকা লুটপাট করে। এ ছাড়া ১০-১২ ভরি ওজনের স্বর্ণালঙ্কার ছিনিয়ে নেয় কয়েকজনের কাছ থেকে।

গরু ব্যবসায়ী আলমডাঙ্গার জেহালা গ্রামের কুতুবউদ্দিন ও জোড়গাছা গ্রামের আজাদ হোসেন জানান, হাফপ্যান্ট পরা ডাকাতদের হাতে দেশীয় অস্ত্র ও হাতবোমা সাদৃশ্য কিছু ছিল। তারা আমাদের কাছ থেকে গরু বিক্রির ১৩ লাখ ৩০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়েছে।

ঝিনাইদহ চাকলাপাড়ার বিশ্বজিৎ সাহা, রাজু আহম্মেদ ও মিলন জানান, তাদের কাছ থেকে ৫২ হাজার টাকা, একটি স্বর্ণের চেন, একটি ব্রেসলেট ও পাঁচটি আংটি ছিনিয়ে নেয় ডাকাতরা। চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার সড়াবাড়ীয়া গ্রামের ঠিকাদার ও ইটভাটা মালিক আবদুল ওয়াহেদ মিয়া জানান, তার প্রাইভেট কার থেকে ৯ লাখ টাকা ছিনিয়ে নেওয়ার সময় তাকে মারধর করে ডাকাতরা।

ভুক্তভোগীরা জানান, প্রায় এক ঘণ্টা ডাকাতির পর এলাবাসী টের পায়। তারা লাঠিসোঁটা নিয়ে ঘটনাস্থলে আসার আগেই ডাকাতরা পালিয়ে যায়। রাত ১০টার দিকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবু তারেক, সার্কেল এসপি মুন্না বিশ্বাস ও দর্শনা থানার ওসি লুৎফুল কবীর ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। তারা ভুক্তভোগীদের কাছে ডাকাতির বর্ণনা শোনেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবু তারেক জানান, রাস্তায় বাবলাগাছ ফেলে ডাকাতদল তাণ্ডব চালিয়েছে। আমরা ডাকাতদের ধরতে অভিযান শুরু করেছি।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর