,

images (1)

খুন করে স্বামীর নামে অভিযোগ দিতে থানায় স্ত্রী

হাওর বার্তা ডেস্কঃ মাথায় আঘাত করে হত্যার পর থানায় উপস্থিত হয়ে উল্টো স্বামীর বিরুদ্ধেই অভিযোগ করতে গেলেন এক স্ত্রী। পরে পুলিশের হাতে আটক হয়েছেন তিনি। ওই নারীর নাম মোর্শেদা খামারু (৪৫)। গতকাল সোমবার গাজীপুরের টঙ্গী পূর্ব আরিচপুর ভুঁইয়াপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

মোর্শেদা রাজশাহী জেলার বাগমারা থানার সাদিপুর গ্রামের প্রয়াত মনছুর খামারুর মেয়ে। প্রথম স্বামীকে তালাক দিয়ে ১৩ বছর আগে তিনি রংমিস্ত্রি ফয়সাল আলম খানকে (৩৩) বিয়ে করেন।

নিহত ফয়সাল আলম সিলেট শহরের মো. রইছ আলী খানের ছেলে। স্ত্রীকে নিয়ে তিনি ভুঁইয়াপাড়ার মো. রফিকুল ইসলামের বাড়িতে ভাড়া থাকতেন।

পারিবারিক কলহের জেরে এ হত্যাকাণ্ড ঘটেছে বলে জানিয়েছেন প্রতিবেশীরা। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

টঙ্গী পূর্ব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাবেদ মাসুদ জানান, থানায় অভিযোগ করতে এলে মোর্শেদাকে নিয়ে ভাড়া বাসায় যায় পুলিশের একটি দল। ঘরে ঢুকে স্বামী ফয়সালের নিথর দেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়। পরে তাঁকে উদ্ধার করে হাসপাতালে আনা হলে চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

জিজ্ঞাসাবাদে মোর্শেদা জানান, তিনি মসলা বাটার শিল দিয়ে ফয়সালের মাথায় আঘাত করেন। পরে গলায় গামছা পেঁচিয়ে মৃত্যু নিশ্চিত করেন।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর