,

image-547646-1651737662

মায়ের হাত থেকে শিশুকে কেড়ে নিল ঘাতক বাস

হাওর বার্তা ডেস্কঃ মায়ের হাত ধরেই দুই ভাইবোন রাস্তা দিয়ে হাঁটছিলেন। হঠাৎ পেছন থেকে এসে ধাক্কা দিল ঘাতক বাস।

এতে মায়ের হাত থেকে ছিটকে পড়ে বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা গেল সাত বছর বয়সি কন্যা ইলিমা আক্তার মিম। প্রাণে বেঁচে গেছে তার ছোট ভাই ও মা সেফালী আক্তার সাথী।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় এই হৃদয়বিদারক ঘটনাটি ঘটেছে চাঁদপুর-কুমিল্লা মহাসড়কের হাজীগঞ্জ উপজেলার ২নং বাকিলা ইউনিয়নের গোগরায়।

শিশু ইলিমা স্থানীয় গোগরা গ্রামের তালতলা বাড়ির সিএনজি স্কুটারচালক মুরাদ হোসেনের মেয়ে। ঘাতক বাসটি বোগদাদ সার্ভিসের।

দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করে হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ যোবাইর সৈয়দ জানান, লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। আইনানুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বাসটিকে জব্দ করা হয়েছে।

ঘটনাস্থল থেকে প্রত্যক্ষদর্শী মজিব পাটোয়ারী  জানান, বেলা ১১টার দিকে চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়কের পাশে দাঁড়িয়ে অটোরিকশার জন্য দুই সন্তানকে নিয়ে অপেক্ষা করছিলেন সেফালী আক্তার সাথী। এ সময় হঠাৎ চাঁদপুর থেকে কুমিল্লাগামী বোগদাদ পরিবহণের বাস (ঢাকা মেট্টো-ব ১৫-৭২২৫ ) মায়ের সামনে শিশু ইলিমাকে চাপা দেয়। চাকায় পিষ্ট হয়ে সঙ্গে সঙ্গে তার মৃত্যু হয়।

স্থানীয় বোরহান মিজি  জানান, শিশুটির এ অবস্থা দেখে মুহূর্তে জ্ঞান হারান তার মা। হাসপাতালে অজ্ঞান মাকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর