,

image-427920-1622867366

ছেলেকে বিমানে উঠিয়ে ফেরার পথে বাথরুমে বাবার মৃত্যু

হাওর বার্তা ডেস্কঃ বিমানবন্দরে ছেলেকে বিমানে উঠিয়ে দিয়ে গ্রামের বাড়িতে যাওয়ার পথে গাজীপুরের টঙ্গীতে বাসস্ট্যান্ডের বাথরুমে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে।

নিহতের নাম সোহরাব আলী (৬০)। তিনি হবিগঞ্জ জেলার বানিয়াচং থানার নজরপুর কুমড়ী গ্রামের মৃত হাজী শরাফত আলীর ছেলে।

পুলিশ ও স্বজনরা জানান, নিহতের মেঝ ছেলে ইমরান সিঙ্গাপুর যাবে। এ জন্য ছেলেকে নিয়ে তিনি হবিগঞ্জ থেকে গত বুধবার রাতে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আসেন। বৃহস্পতিবার ভোরে ছেলে বিমানযোগে সিঙ্গাপুরের উদ্দেশে রওনা দেওয়ার পর বাবা গ্রামের বাড়ি যাচ্ছিলেন।

পথিমধ্যে সকাল সাড়ে ৭টার দিকে টঙ্গী পূর্ব থানাসংলগ্ন এনা বাস কাউন্টারে এসে হবিগঞ্জ যাওয়ার উদ্দেশ্যে গাড়ির টিকিট সংগ্রহ করেন সোহরাব আলী। এর কিছুক্ষণ পর প্রকৃতির ডাকে কাউন্টারের ভেতরে বাথরুমে যান তিনি।

সকাল সোয়া ৮টায় হবিগঞ্জের উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়ার জন্য এনা সার্ভিসের গাড়িটি কাউন্টারে এসে পৌঁছলে সোহরাব আলীকে গাড়িতে ওঠার জন্য বাথরুমের দরজার বাইরে থেকে ডাকাডাকি করতে থাকে।

এ সময় কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে কাউন্টারে দায়িত্বরত লোকজন থানা পুলিশে সংবাদ দেন। পরে টঙ্গী পূর্ব থানার এসআই শেখ সজল হোসেন ঘটনাস্থলে পৌঁছে বাথরুমের দরজা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে তাকে অজ্ঞান অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন।

তাকে উদ্ধার করে টঙ্গী শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক শরাফত আলীকে মৃত ঘোষণা করেন।

টঙ্গী পূর্ব থানার এসআই বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, এটি একটি স্বাভাবিক মৃত্যু। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসকের মাধ্যমে জানতে পারলাম হার্টঅ্যাটাকে তার মৃত্যু হয়েছে। আবেদনের পরিপেক্ষিতে নিহতের লাশ তার স্বজনদের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর