,

naogaon-alamin-pic-01-20211222100119

পত্নীতলায় প্রথমবারের মতো তৃতীয় লিঙ্গের প্রার্থী আলামিন

হাওর বার্তা ডেস্কঃ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নওগাঁর পত্নীতলায় ইউপি সদস্য পদে প্রার্থী হয়েছেন তৃতীয় লিঙ্গের আলামিন। তিনি মাইক প্রতীক নিয়ে উপজেলার পত্নীতলা ইউনিয়ন পরিষদের ২নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছেন। উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জাহিদুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আলামিন পত্নীতলা ইউনিয়নের শম্ভুপুর গ্রামের মোজাম্মেল হোসেনের সন্তান। জেলায় প্রথম তৃতীয় লিঙ্গের কেউ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, পত্নীতলা উপজেলা ১১টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত। এখানে চেয়ারম্যানে পদে ৪৫ জন, সাধারণ সদস্য পদে ৩৮৭ জন এবং সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১৪৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। গত ২০ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়। পত্নীতলা ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডে সংরক্ষিত নারী মেম্বার পদে মাইক প্রতীক নিয়ে তৃতীয় লিঙ্গের আলামিন নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছেন। এ ওয়ার্ড থেকে তিনিসহ মোট চারজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। আগামী ৫ জানুয়ারি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন।

প্রতীক পাওয়ার পর থেকে মাঠে নেমেছেন আলামিন। ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে স্বর্স্ফূতভাবে প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছেন। তবে অন্য প্রার্থীদের তুলনায় তিনি এগিয়ে বলে জানা গেছে।

স্থানীয়রা জানান, এলাকায় খুবই পরিচিত মুখ আলামিন। সবার সঙ্গে সে সহজেই মিশতে পারে। এলাকায় পরিচিত থাকায় আশা করা যাচ্ছে নির্বাচনে সে বিজয়ী হবে। অসহায় ও নারীদের নিয়ে কাজ করবে এমন প্রত্যাশা এলাকাবাসীর।

আলামিন বলেন, আমি জনগণের সেবা করতে চাই। আমরা বৈষম্যের শিকার। আমাদের সহজে কেউ মেনে নিতে পারে না। জনগণ যদি আমাকে চায়, তাহলে জয়ী হব। সাধারণদের পাশে থাকতে চাই। বিজয়ী হতে পারলে এলাকা ও সমাজে পিছিয়ে পড়া নারীদের উন্নয়ন নিয়ে কাজ করতে চাই।

সুশাসনের জন নাগরিক সুজনের সমন্বয়কারী আসির উদ্দিন বলেন, তৃতীয় লিঙ্গের মানুষরা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে, আমাদের জন্য এটা একপ্রকার আশাব্যাঞ্জক। যেহেতু এই মানুষদের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে তাদের প্রতিনিধিত্ব করা দরকার, সেক্ষেত্রে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করাটা গুরুত্বপূর্ণ। তার মাধ্যমে পত্নীতলাসহ জেলার বিভিন্ন উপজেলায় তৃতীয় লিঙ্গের যারা আছেন তাদের অধিকার প্রতিষ্ঠার যে আন্দোলন তা জোরদার হবে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর