,

image-159155-1640063235

গোবিন্দগঞ্জের শালমারা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন মা-ছেলে

হাওর বার্তা ডেস্কঃ গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার ১৭নং শালমারা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হয়েছেন মা ও ছেলে। চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হিসেবে একই ইউনিয়নে মা-ছেলের নির্বাচনে লড়ার বিষয়টি জনমনে নানা প্রশ্নের পাশাপশি হাস্যরসেরও জন্ম দিয়েছে।

জানা গেছে, আগামী ২৬ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিতব্য চতুর্থ ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার ১৭নং শালমারা ইউনিয়নের আছাব উদ্দিনের ছেলে ইমরান হোসেন মিলন ঘোড়া প্রতীকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

একই ইউনিয়নে তার মা মোছা. মিহিলিকা বেগম একই পদে টেলিফোন প্রতীকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করছেন। বিষয়টি নিয়ে এলাকার সাধারণ ভোটারদের মাঝে অনেক আলোচনা-সমালোচনা ও নানা হাস্যরসের সৃষ্টি হয়েছে।

এ বিষয়ে খোঁজ নিতে সংবাদকর্মীরা তাদের বাড়িতে গেলেও নির্বাচনের কাজে ব্যস্ত থাকায় তাদের কাউকেই পাওয়া যায়নি। তবে মোবাইল ফোনে ঘোড়া প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী ছেলে ইমরান হোসেন মিলন জানিয়েছেন, নানা জটিলতার কারণে তারা মা-ছেলে দুজনই মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। কিন্তু সময় না পাওয়ায় তার মা মোছা. মিহিকা বেগম প্রার্থিতা প্রত্যাহার করতে পারেননি। ফলে নিয়ম অনুযায়ী তারা মা এবং ছেলে দুজনেরই প্রার্থিতা রয়ে গেছে। কী ধরনের জটিলতার কারণে তারা মা-ছেলে দুজনই প্রার্থী হয়েছিলেন তার কারণ তিনি বলেননি।

১৭নং শালমারা ইউনিয়নের অনেক ভোটার  জানিয়েছেন, একই পরিবার থেকে মা এবং ছেলের একই সঙ্গে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হওয়ার ঘটনা এবারই প্রথম। তাই বিষয়টি সাধারণ মানুষের মাঝে নানা আলোচনা ও হাস্যরসের জন্ম দিয়েছে।

আগামী ২৬ ডিসেম্বর এ ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে এবার শালমারা ইউনিয়নে মোট সাতজন প্রার্থী চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। অন্য প্রার্থীরা হলেন, আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আনিছুর রহমান আনিস, আবু তাহের মণ্ডল শামীম মোটরসাইকেল, আইয়ুব আলী চশমা, আমির হোসেন শামীম তালুকদার অটোরিকশা ও রাসেদ মোশারফ শিবলু আনারস প্রতীক।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর