,

image-181493-1636876701bdjournal

নেশার টাকার জন্য তিন সন্তানকে বিষপান, একজনের মৃত্যু

হাওর বার্তা ডেস্কঃ গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে নেশার টাকা না পেয়ে তিন শিশু সন্তানকে বিষপান করালেন বাবা আলম শেখ।

রোববার সকাল ৮টার দিকে তিন শিশু সন্তানের মধ্যে হোসেন শেখ (৩) নামে এক শিশু ফরিদপুর শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতা‌লে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়।

ঘটনাটি ঘটেছে জেলার মুকসুদপুর উপজেলার খান্দারপাড়া ইউনিয়নের গোপালপুর গ্রামে।

এ ঘটনায় ঘাতক বাবা আলম শেখকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গত বৃহস্প‌তিবার (১১ নভেম্বর) সকালে নেশার টাকা না পেয়ে স্ত্রীকে মারধর করে বাড়ি থেকে বের করে দিয়ে বাবা আলম শেখ তিন শিশুপুত্রকে জোর করে বিষপান করায়। বাকী দুই শিশু সিয়াম শেখ (১০) ও হাসান শেখ (৩) ফরিদপুর শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতা‌লে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে। তাদের অবস্থাও সংকটাপন্ন।

শিশুদের মা সীমা বেগম জানান, তার স্বামী আলম শেখ মাদকাশক্ত। গত বৃহস্পতিবার নেশার টাকা চাইলে না দেয়ায় তাকে মারধর করে বাড়ি থেকে বের করে দেয়।

পরে তিন শিশুকে জোর করে বিষপান করায়। আমার এক শিশু মারা গেছে। অন্য দুই শিশু ও মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে। আমি আলম শেখের ফাঁসি চাই। যাতে আর কোন বাবা যেন তার সন্তানদের সাথে এমন কাজ করতে সাহস না পায়।

মুকসুদপুর থানায় ওসি আবু বকর মিয়া জানান, মাদকাসক্ত আলম শেখ নেশার টাকা না পেয়ে স্ত্রীকে পিটিয়ে বাড়ি থেকে বের করে দিয়ে তিন সন্তানকে বিষপান করায়।

পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য মুকসুদপুর হাসপাতালে ভর্তি করে। তাদের অবস্থার অবনতি হলে ওই দিনই ফরিদপুর শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়।

গত শুক্রবার ওই তিন শিশুকে মা সীমা বেগম বাড়িতে নিয়ে আসেন। গতকাল শনিবার তাদের অবস্থা আবার খারাপ হলে স্থানীয়দের আর্থিক সহায়তায় আবার ফরিদপুর মেডিকেলে নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ সকালে হোসেন শেখ মারা যায়।

তিনি আরও জানান, বৃহস্পতিবার শিশুদের বাবা আলম শেখকে হত্যাচেষ্টা মামলায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বর্তমানে সে গোপালগঞ্জ জেলা কারাগারে রয়েছে। একটি শিশু মারা যাওয়ায় ওই মামলাকে হত্যা মামলা করা হবে বলে তিনি জানান।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর