,

4

মাতাব্বরের সঙ্গে ভাবির অন্তরঙ্গ মুহূর্ত দেখে ফেলায় শ্লীলতাহানির হুমকিতে ননদ

হাওর বার্তা ডেস্কঃ গ্রাম্য মাতব্বরের সঙ্গে ভাবির পরকীয়া। দুজনের অন্তরঙ্গ মুহূর্ত দেখে ফেলায় রোষানলে পড়েছে ননদ। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ওই কিশোরীর ভাইকে জেল খাটিয়েও ক্ষান্ত হননি মাতাব্বর। এখন তার শ্লীলতাহানির হুমকি দিচ্ছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

গত মঙ্গলবার (২ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে শেরপুর প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এমন অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী ওই কিশোরীর মা বাছেনা খাতুন। তিনি ধুনট উপজেলার কুঁড়িগাতী গ্রামের রমজান আলী শেখের স্ত্রী।

বাছেনা খাতুন বলেন, আমার ছেলে সোহাগ বাবু ইঁটভাটায় কাজ করে। এই সুযোগে গ্রামের মাতব্বর আবু হাসেম আমার ছেলের বউয়ের সঙ্গে পরকীয়ায় লিপ্ত হন। এমনকি ছেলের ঘরের মধ্যে পুত্রবধূর সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় ধরা পড়েছেন তিনি। কিন্তু প্রভাবশালী হওয়ায় তার বিরুদ্ধে মুখ খোলার সাহস পাইনি। ওই ঘটনার পর আপস-মীমাংসার মাধ্যমে আমার ছেলে সোহাগ তার স্ত্রীকে তালাক দেয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন ওই মাতব্বর। গত বছরের ২৭ ডিসেম্বর তিনি আমার ছেলেকে গাছের সঙ্গে বেঁধে মারধর করেন। পরবতীতে চুরির নাটক সাজিয়ে মিথ্যা মামলা দিয়ে কয়েকদিন কারাগারে পাঠানো হয় সোহাগকে।

তিনি আরো বলেন, মিথ্যা মামলায় আমার ছেলেকে জেল খাটিয়েও ক্ষান্ত হননি মাতব্বর আবু হাসেম। তার বাহিনীর অত্যাচার নির্যাতনে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছি আমরা। আমার স্কুলপড়ুয়া মেয়েকে শ্লীলতাহানির হুমকি-ধমকি দেয়া হচ্ছে দিনের পর দিন। আমরা চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। প্রশাসন হস্তক্ষেপ না করলে ওই মাতব্বরের হাত থেকে আমাদের মুক্তি পাওয়া কঠিন হয়ে যাবে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর