,

10

ঝুঁকিপূর্ণ বাঁশের সাঁকোই ভরসা ২০ গ্রামের মানুষের

হাওর বার্তা ডেস্কঃ সিরাজগঞ্জের তাড়াশে সগুনা ইউনিয়নের ধামাইচ বাজার খেয়াঘাটে গুমানী নদীর ওপর একটি ব্রিজের অভাবে লোকজন বহুদিন ধরে ঝুঁকিপূর্ণ বাঁশের সাঁকো দিয়ে যাতায়াত করছেন। জনদুর্ভোগ এড়াতে ব্রিজ নির্মাণের দাবি জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা।

শিহাব উদ্দিন, আব্দুল কাদের, রহিম মণ্ডল, খাদিজা পারভীন ও লাভলি খাতুন নামে কয়েকজন ভুক্তভোগী জানান, গুমানী নদীর উত্তর পাড়ের গ্রামগুলোয় মৌসুমে প্রচুর পরিমাণে ধান ও সবজি উৎপাদন করেন স্থানীয় কৃষকরা। তাদের উৎপাদিত ফসল বহু কষ্টে বাঁশের সাঁকো পার করে নদীর দক্ষিণ পারের প্রসিদ্ধ ধামাইচ বাজারসহ অন্যান্য বাজরে বিক্রি করে থাকেন।

ভুক্তভোগী লোকজন আরও জানান, নদীর ওপর ব্রিজ না থাকায় ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হতে বাধ্য হচ্ছেন নদীর দুপাড়ের ধামাইচ গ্রাম, ইশ্বরপুর, হেমনগর, নওখাদা, বিন্নাবাড়ি, চরকুশাবাড়ি, দবিরগঞ্জ, রানী গ্রাম, কাটাবাড়ি, বাহাদুর পাড়াসহ কমপক্ষে ২০ গ্রামের লাখ মানুষ।

সরেজমিনে বুধবার দুপুরে দেখা যায়, গুমানী নদীর বাঁশের সাঁকোটি অসমতল পাটাতন দিয়ে তৈরি করা হয়েছে। দুপাশে রেলিংও নেই। সাঁকোর ওপর দিয়ে লোকজন হেঁটে যাওয়ার সময় দুলতে থাকে।

সগুনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান টি এম আব্দুল্লাহ হেল বাকি বলেন, ব্রিজের অভাবে লাখ মানুষ বহুকাল ধরে ঝুঁকিতে আছেন। জীবনমান উন্নয়নেও পিছিয়ে তারা। ধামাইচ বাজার খেয়াঘাটে ব্রিজ নির্মাণ করা হলে এলাকার মানুষের দুর্ভোগ লাঘব হবে।

এ প্রসঙ্গে উপজেলা প্রকৌশলী মো. বাবলু মিয়া দৈনিক ইত্তেফাককে বলেন, প্রায় তিন বছর হলো প্রাক্কলিত প্রকল্প জমা দেওয়া হয়েছে। অনুমোদন পেলে তবেই গুমানী নদীর ধামাইচ বাজার খেয়াঘাটে ব্রিজ নির্মাণ করা সম্ভব।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর