,

7

দুই হাজার নারী ও প্রতিবন্ধী পেলেন কম্বল চাদর

হাওর বার্তা ডেস্কঃ সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে পূর্বাচল লেডিস ক্লাব। শীত নিবারণে দুই হাজার অসহায় দুস্থ নারী ও প্রতিবন্ধীকে কম্বল ও চাদর দিয়েছেন তারা। পর্যায়ক্রমে সর্বমোট ১০ হাজার মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করবে ক্লাবটি। পাশাপাশি মহামারি করোনা মোকাবেলায় বিতরণ করা হবে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও মাস্কসহ বিভিন্ন সুরক্ষা সামগ্রী। পুরনো কাপড় সংগ্রহ করে আর্থিকভাবে অসচ্ছল মানুষকে দিতে ‘মানবতার ঘর’ নামে একটি উদ্যোগও নিয়েছেন তারা।

পূর্বাচল লেডিস ক্লাবে শনিবার সকালে শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। আয়োজকরা তাদের পরিকল্পনার কথা জানান। লেডিস ক্লাবের সভাপতি সৈয়দা ফেরদৌসী আলম নীলার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন তারাব পৌরসভার মেয়র ও ক্লাবের প্রধান উপদেষ্টা হাসিনা গাজী। বিশেষ অতিথি ছিলেন ক্লাবের নির্বাহী পরিচালক (অর্থ) আয়েশা আক্তার পারভীন ও নির্বাহী পরিচালক রুকসানা কবির কাকলী। উপস্থিত ছিলেন ক্লাবের সদস্য আইএফআইসি ব্যাংকের হেড অব রিটেইল ব্যাংকিং ফেরদৌসী বেগম, শাহরিয়া আলম রিয়া, ব্যবসায়ী নাসিমা পারভীন, এশিয়ান প্রিন্টিং অ্যান্ড প্যাকেজিং-এর চেয়ারম্যান ফারহানা মোতালিব, ‘হোয়াইট হাউস’র ডিরেক্টর মুক্তা আক্তার, ফ্লাইট এটেন্ডেন্ট (এসভি) শিরীন সুলতানা, কেবিন ক্রু (এসভি) শিরীন আখতার, মেটলাইফের সুলতানা ফাহমিদা, পাইওনিয়র ডেন্টাল কলেজের অধ্যক্ষ ড. রাকিবা সুলতানা, ডি কে গ্রুপের চেয়ারম্যান সাজেদা আক্তার, মেঘনা লাইফ ইন্সুরেন্সের ডিরেক্টর সাবিতা ফেরদৌসী, ট্রাস্ট ব্যাংকের সামিন জান্নাতুল ও সোনিয়া আল মাহফুজ প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে হাসিনা গাজী বলেন, সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে আমাদের এ উদ্যোগ। আমরা মানুষের জন্য কিছু করতে চাই। আজকের অনুষ্ঠানে যারা আছেন তাদের প্রতি আমার আহ্বান, আপনারা বাল্যবিবাহ ও যৌতুক দেবেন না এবং নেবেন না। সৈয়দা ফেরদৌসী আলম নীলা বলেন, আমাদের সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি অসহায় এই নারীদের জন্য কিছু করতে পারছি। শীত নিবারণে কম্বলের পাশাপাশি এবার আমরা গায়ে দেওয়ার চাদর দিয়েছি। গড়ে তুলেছি ‘মানবতার ঘর’। এর মাধ্যমে পুরনো কিন্তু ব্যবহার উপযোগী পোশাক জমা করে দুস্থ মানুষের মাঝে বিতরণ করা হবে। রুকসানা কবির কাকলী বলেন, তীব্র শীতে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতেই এ উদ্যোগ। আয়েশা আক্তার পারভীন বলেন, এমন উদ্যোগ আগামীতেও অব্যাহত থাকবে।

ক্লাবের সদস্য ফেরদৌসী বেগম যুগান্তরকে বলেন, পূর্বাচল লেডিস ক্লাব সব সময় সাধারণ মানুষের জন্য কাজ করে আসছে। করোনা মহামারিতে লকডাউনের সময় দুস্থ ও অসহায়দের মধ্যে চাল, দুধ, চিনিসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য বিতরণ করেছে। শীত নিবারণে কম্বল ও চাদর দিচ্ছে। আগামীতেও সম্বলহীন অসহায় মানুষের পাশে থাকবে এই ক্লাব।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর