,

24

মদনে পৌরসভায় নির্বাচনী প্রচারণায় ব্যস্ত তৃতীয় লিঙ্গের সোনালী

বিজয় দাস নেত্রকোনাঃ নেত্রকোনা জেলার মদন পৌরসভা নির্বাচনের প্রার্থী তৃতীয় লিঙ্গের (হিজড়া) সোনালী প্রচার প্রচারণায় পিছিয়ে নেই। রাস্তাঘাট, দোকানপাট ও বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোট প্রার্থনা করছেন এ প্রার্থী ও তার সমর্থকরা। ভোটার দেখলেই পা ছুঁয়ে সালাম করে দোয়া চাইছেন। তার নাম স্যাজুতি তালুকদার সোনালী (৩৫)।
পৌর এলাকার ৩, ৪ ও ৫ নং ওয়ার্ড থেকে সংরক্ষিত আসনের মহিলা কাউন্সিলর পদে অটোরিক্সা প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন তিনি। তার সঙ্গে লড়ছেন আরও চার নারী। জেলার নির্বাচনী ইতিহাসে তৃতীয় লিঙ্গের প্রার্থী হিসেবে তিনিই প্রথম।

জানা গেছে, স্যাজুতি তালুকদার সোনালী মদন পৌর এলাকায় ‘স্বপ্নের ছোঁয়া সমাজকল্যাণ সংস্থা’ নামে একটি সংগঠনের নেতৃত্ব দেন। তিনি এ সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক। দুস্থ, প্রতিবন্ধী ও হিজড়াদের নিয়ে প্রতিষ্ঠিত এ সংগঠনের মোট সদস্য সংখ্যা ৪৪৬ জন। তাদের মধ্যে তৃতীয় লিঙ্গের (হিজড়া) সদস্য রয়েছেন ৪৫ জন।

২০১৮ সালে নিবন্ধিত এ সংগঠনটি হিজড়াদের পাশাপাশি দুস্থ, প্রতিবন্ধী ও পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে নানামুখী কার্যক্রম পরিচালনা করছে। ভিক্ষাবৃত্তি ও চাঁদাবাজি থেকে সরিয়ে কর্মমুখী করেছে তৃতীয় লিঙ্গের ১০ জনকে। কমিউনিটির অধিকার আদায়ের আন্দোলনেও সব সময় সরব এ সংগঠনটি। এ কারণে এলাকার সবাই চেনেন সোনালীকে।

অষ্টম শ্রেণি পাস সোনালী বলেন, ‘আমি দীর্ঘদিন ধরে সমাজ সেবামূলক কাজে জড়িত। এবার একটি বৃহৎ পরিসরে কাজ করতে চাচ্ছি। নির্বাচনী এলাকার সাতটি গ্রামের প্রায় সব ভোটার আমাকে চেনেন। তাদের সঙ্গে আলোচনা করে এবং তাদের পরামর্শ নিয়েই আমি প্রার্থী হয়েছি। ভোটাররা আমাকে উৎসাহিত করছেন। তারা আমাকে খুব স্বাভাবিকভাবে গ্রহণ করেছেন।’

নিজ সংগঠনের সদস্যদের পাশাপাশি এলাকার সচেতন অনেকে তার পক্ষে বাড়ি বাড়ি গিয়ে প্রচার চালাচ্ছেন বলেও জানান তিনি।

জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী সোনালী বলেন, ‘নির্বাচিত হলে আমি সততার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করব। প্রমাণ করব তৃতীয় লিঙ্গের মানুষরাও অন্যদের মতোই সব কাজ স্বাভাবিকভাবে করতে পারেন।’

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর