,

12

‘চুরি যাওয়া’ সেই শিশুর লাশ মিলল বাড়ির সেপটিক ট্যাংকে, বাবা-মা আটক

হাওর বার্তা ডেস্কঃ সাতক্ষীরা সদর উপজেলায় বিছানা থেকে ‘চুরি যাওয়া’ ১৫ দিনের সেই নবজাতকের লাশ বাড়ির সেপটিক ট্যাংক থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।  এ ঘটনায় ওই শিশুর বাবা ও মাকে আটক করা হয়েছে।

শুক্রবার দিবাগত রাত ১টার দিকে উপজেলার হাওয়ালখালী এলাকায় নিজ বাড়ির সেপটিক ট্যাংকের ভেতর থেকে ওই নবজাতকের লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত নবজাতকের নাম সোহান।  সে ওই এলাকার সোহাগ হোসেন ও ফাতেমা দম্পতির ছেলে।

অভিযোগের বরাত দিয়ে সদর থানার ওসি মো. আসাদুজ্জামান জানান, সোহাগ স্ত্রী ফাতেমাকে নিয়ে হাওয়ালখালী গ্রামে রাস্তার ধারে নানাবাড়িতে বসবাস করছিলেন।  বৃহস্পতিবার দুপুরে শিশুটিকে নিয়ে বাবা-মা ঘুমিয়ে ছিলেন।  সোহাগের অভিযোগ, এসময় কে বা কারা সদ্যজাত শিশুটিকে তুলে নিয়ে যায়।  এ বিষয়ে সদর থানায় একটি জিডি করেন সোহাগ।

শুক্রবার সকাল থেকে সদর থানা পুলিশ ও পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) চুরি যাওয়া শিশু উদ্ধারে কাজ শুরু করে।

শুক্রবার দিবাগত রাতে সন্দেহ হওয়ায় সেপটিক ট্যাংকের ঢাকনা খুললে শিশুর লাশ দেখা যায়। এ ঘটনায় নবজাতকের বাবা ও মাকে আটক করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর