,

images

দ্বিতীয় বিয়ে করার জন্য তিন কন্যা শিশু হত্যা

হাওর বার্তা ডেস্কঃ দ্বিতীয় বিয়ে করার  জন্য মরিয়া হয়ে গিয়েছিলেন এই ব্যক্তি। কিন্তু তার তিন কন্যা শিশু এই পথে বড় বাধা হয়ে দাঁড়ায়। দ্বিতীয় বিয়ে করতে শেষমেষ নিজের তিন কন্যা শিশুকে হত্যা করেছেন তিনি।

পাকিস্তানে লাহোরে এই ঘটনা ঘটেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, আসলাম নামে এক ব্যক্তি দ্বিতীয় বিয়ে করার জন্য এক নারীকে প্রস্তাব দেন।  কিন্তু ওই নারীর পরিবার তার তিন কন্যা শিশু থাকার কারণে প্রস্তাব ফিরিয়ে দেয়।

এর আগে আসলামের স্ত্রী তিনকন্যা শিশু তাহরীম (৯) মালাইকা (৮)  এবং মাশাল ফাতিমাকে (৬) স্বামীর কাছে রেখে বাবার বাড়ি চলে যায়।

গত মঙ্গলবার আসলাম জোরপূর্বক দ্বিতীয় বিয়ের জন্য পছন্দকৃত ওই নারীর বাড়ি প্রবেশ করে প্রকাশ্যে গুলি চালায়। এতে মোহাম্মদ রিসায়াত নামে বাড়ির একজন নিহত এবং নারীসহ  চারজন আহত হন।

এই মামলায় পুলিশ আসলামকে গ্রেফতার করে।

রিসায়াত হত্যার পর আসলাম গ্রেফতার হলে তার স্ত্রী তিন শিশুকে দেখতে যান। কিন্তু গিয়ে তাদের খুঁজে পান না।

এরপর মেট্টো পুলিশ স্টেশনে তিনি এই ঘটনা জানান। পুলিশ আসলামকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তিন শিশুকে হত্যার ঘটনা বেরিয়ে আসে। আসলাম তিন কন্যা শিশুকে শ্বাসরোধে হত্যার পর তাদেরকে খালে ফেলে দেওয়ার কথা স্বীকার করেন।

শুক্রবার ডুবুরিরা শিশু ফাতিমার লাশ উদ্ধার করে। বাকি দুই বোন ডুবে গেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে তাদের উদ্ধারে ডুবুরিদের উদ্ধার কার্যক্রম চলছিল।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর