,

3

স্বাগতিক মালদ্বীপকে হারিয়েই ফাইনালে ভারত

হাওর বার্তা ডেস্কঃ ফাইনালে উঠতে গেলে নেপালের বিপক্ষে বাংলাদেশের যে সমীকরণ মেলাতে হতো, তা প্রযোজ্য ছিল ভারতের ক্ষেত্রেও। বাংলাদশ জয়ের সূত্র মেলাতে না পারলেও, পেরেছে ভারত। গতকাল সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের রাউন্ড রবিন লিগ পর্বের শেষ ম্যাচে স্বাগতিক মালদ্বীপকে ৩-১ গোলে হারিয়ে আসরের ফাইনালে উঠেছে ভারত। দলকে টানা সপ্তমবারের মতো সাফের ফাইনালে তুলতে জোড়া গোল করেছেন তারকা স্ট্রাইকার সুনিল ছেত্রি।

পয়েন্ট খোয়ালেই বাদ, এমন চাপ নিয়েই কাল মালেতে খেলতে নামে ভারত। তবে জয় আবশ্যক বলে শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ফুটবলের পসরা সাজিয়ে বসেন ছেত্রি-মানবীররা। সেই সুবাদে ৩৩ মিনিটেই প্রথম গোলটা পেয়ে যায় ভারত। মাঝমাঠ থেকে ব্রেন্ডন ফার্নান্দেজের অসাধারণ এক ডিফেন্স চেরা পাস খুঁজে নেয় মানবীর সিংকে। বক্সে ঢুকে কাছের পোস্ট থেকে বল জালে জড়াতে কোনো সমস্যাই হয়নি মানবীরের।

প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার আগে সেই গোল অবশ্য শোধ দেয় মালদ্বীপ। ক্ষিপ্র গতিতে বল নিয়ে ডি বক্সে ঢুকে পড়া মালদ্বীপ উইঙ্গার হামজা মোহামেদকে ভারতের প্রিতম কোটাল অবৈধভাবে ফেলে দিলে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। স্পটকিক থেকে লক্ষ্যভেদ করেন আলি আশফাক। এবারের সাফে যেটা ছিল আশফাকের তৃতীয় গোল।

দ্বিতীয়ার্ধে ভারত ছিল অদম্য। প্রচণ্ড গরমেও দলটা খেলে গতিশীল ফুটবল তারই সুফল ৬২ মিনিটে ছেত্রির গোল। প্রথম গোল করা মানবীর ডি বক্সে ক্রস থেকে পাওয়া বল নিয়ন্ত্রণ করতে গেলে ভলি হয়ে তা পড়ে সামনেই থাকা ছেত্রির পায়ের কাছে। গোললাইনের খুব কাছে থাকায় জালের ঠিকানা খুঁজে নিতে কষ্ট হয়নি তার। এই গোলেই আন্তর্জাতিক ফুটবলে গোলসংখ্যায় ব্রাজিল কিংবদন্তি পেলেকে (৭৭) ছাড়িয়ে যান ছেত্রি।

মিনিট দশেক পর রাইটব্যাক প্রিতমের ফ্রি-কিক থেকে অসাধারণ এক হেডে ম্যাচে নিজের দ্বিতীয় এবং ভারতের তিন নম্বর গোলটা করেন ছেত্রি। এবারের সাফে ভারতের হয়ে তার চতুর্থ। সেই গোলেই মূলত বিদায়ঘণ্টা বেজে যায় মালদ্বীপের।

ম্যাচের ইনজুরি সময়ে ভারতের ডিফেন্ডার শুভাশিস বোস লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন। তাতে এই ম্যাচে কোনো ক্ষতি হয়নি ভারতের। তবে ফাইনালে আগামী শনিবার নেপাল ম্যাচে লাল কার্ডের জন্য এই সেন্টারব্যাককে ছাড়াই মাঠে নামতে হবে ভারতকে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর