,

10

এক সোনালী মুরগীর ৪টি পা

হাওর বার্তা ডেস্কঃ মুরগী সাধারণত দুই পা বিশিষ্ট হয়। কিন্তু ঝিনাইদহ শহরের চুয়াডাঙ্গা বাসষ্ট্যান্ডের মুরগী ব্যবসায়ী শাহাদৎ হোসেনের দোকানে চার পা বিশিষ্ট একটি সোনালী মুরগীর সন্ধান মিলেছে।

শহরের হামদহ এলাকার আব্দুল ওহাবের ফার্ম থেকে ৫০০ গ্রাম ওজনের এই সোনালী মুরগীটি অন্যান্য মুরগীর সাথেই শনিবার কিনে আনেন শাহাদৎ। কিনে আনার পর দেখেন মুরগীটির চারটি পা।

স্বাভাবিক দুইটি পায়ের সাথেই মুরগীর পেছনে লেজের গোড়া দিয়ে স্বাভাবিক পায়ের মতোই দুইটি পা গজিয়েছে। এই অস্বাভাবিক দুইটি পা নিয়েও মুরগীটি চলাফেরা করতে পারে।

বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর ওই মুরখীটিকে দেখতে উৎসক জনতা মুরগী বিক্রেতার কাছে ভীড় জমায়।

এ বিষয়ে ঝিনাইদহ জেলা পশু সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ হাফিজুর রহমান বলেন, ভ্রন অবস্থায় ডিমের মধ্যে যখন বাচ্চা বড় হয় তখন এমনটি হয়। এই অস্বাভাবকি পক্রিয়াকে বলে “ভ্রন অবস্থার অপবৃদ্ধি বা ডেভলপমেন্ট এনোমেলি এ্যমব্রায়োনিটি স্টেজ।

তিনি আরও বলেন, বলেন অষ্ট্রেলিয়ার একটি অ ল আছে যেখানে গরুর ৬ পা হয়। আবার ভারতের একটি অ ল আছে যেখানে মানুষের হাতে ১২ আঙ্গুল গজায়।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর