,

02

হাওরের তিন উপজেলার লাইব্রেরী পরিদর্শন করলেন রাষ্ট্রপতি

হাওর বার্তা ডেস্কঃ হাওর প্রত্যন্ত অঞ্চল হিসেবে সবার কাছে পরিচিত। এক সময় হাওর এলাকাতে শিক্ষার আলো ছিল না বললেই চলে। কিন্তু বর্তমানে হাওরের তিন উপজেলায় (মিঠামইন-ইটনা-অষ্টগ্রাম) ৩টি কলেজ ও ৩টি উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় সরকারীকরণ করা হয়েছে। বেড়েছে শিক্ষার হার।

এ শিক্ষার ধারা অব্যাহত রাখতে কিশোরগঞ্জের মিঠামইন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তাসলিমা আহমেদ পলির একান্ত প্রচেষ্টায় হাওরের তিন উপজেলার মধ্যে মিঠামইনে প্রথম আধুনিক পরিবেশে লাইব্রেরী প্রতিষ্ঠিত করা হয়েছে। নামকরণ করা হয়েছে মিঠামইন পাবলিক লাইব্রেরী।

গত ২৭ সেপ্টেম্বর বিকেলে মিঠামইন পাবলিক লাইব্রেরী উদ্বোধন করেন  দ্বিতীয় বারের রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। উদ্বোধন শেষে রাষ্ট্রপতি লাইব্রেরীটি পরিদর্শন করেন।

রাষ্ট্রপতির নিজের জন্মস্থান মিঠামইনে প্রথমবারের মতো আধুনিক পরিবেশের লাইব্রেরী দেখে সন্তোষ প্রকাশ করেন। এ সময় রাষ্ট্রপতির সাথে ছিলেন-কিশোরগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক, রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ের সচিব সম্পদ বড়ুয়া, রাষ্ট্রপতির সামরিক সচিব সরোয়ার হোসেন।

রাষ্ট্রপতি এ লাইব্রেরীটি সম্প্রসারণ করতে মিঠামইন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তাসলিমা আহমেদ পলিকে পরামর্শ দেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তাসলিমা আহমেদ পলি বলেন, শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ায় আগ্রহী করে তুলতে আধুনিক পরিবেশে লাইব্রেরীটি তৈরি করা হয়েছে। এখানে ভাটির শার্দুল, মুক্তিযুদ্ধের দলিল, বিভিন্ন ধরণের গল্পের বই, কবিতার, জীবনীগ্রন্থসহ প্রায় ১৩০০ বই রাখা হয়েছে এবং বই আরো বাড়ানো হবে।

ইউএনও আরও বলেন, মহামান্য রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ মহোদয়ের হাতের ছাপসহ উপজেলার মুক্তিযোদ্ধাদের হাতের ছাপ দিয়ে তৈরি একটি মানচিত্র রাখা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

     এ ক্যাটাগরীর আরো খবর